আমার দেখা নয়াচীন সম্পর্কিত যত তথ্য

‘আমার দেখা নয়াচীন’ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের গণচীন ভ্রমণের অভিজ্ঞতার আলােকে লেখা একটি ডায়েরির পুস্তকি রূপ। ১৯৫৪ সালে রাজবন্দি থাকা অবস্থায় বঙ্গবন্ধু চীন ভ্রমণের সরস বিশ্লেষণ করেন। তিনি তার এই লেখার নাম দেন ‘নয়াচীন ভ্রমণ’। এ ডায়েরিটিই ‘আমার দেখা নয়াচীন’ নামে বই আকারে প্রকাশ করা হয়। এটি বঙ্গবন্ধু রচিত তৃতীয় গ্রন্থ। শেখ মুজিবর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীকে কেন্দ্র করে বাংলা একাডেমি ২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ বইটি প্রকাশ করে।

বিষয়বস্তু

২-১২ অক্টোবর ১৯৫২ গণচীনের পিকিংয়ে এশীয় ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলাের প্রতিনিধিদের নিয়ে একটি শান্তি সম্মেলনের আয়ােজন করা হয়। সেই সম্মেলনে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান তথা বর্তমান বাংলাদেশ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রথম চীন সফর।

এই সফরে চীনের অবিসংবাদিত নেতা মাও সে তুং-এর সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর দেখা হয়। এসময় তিনি চীনের রাজনৈতিক ও আর্থসামাজিক অবস্থা প্রত্যক্ষ করেন। চীন ভ্রমণের এসব অভিজ্ঞতার আলােকে তিনি একটি ডায়েরি লেখেন যেখানে তিনি তৎকালীন পাকিস্তান ও চীনের রাজনৈতিক-আর্থসামাজিক অবস্থার তুলনা, কমিউনিস্ট রাষ্ট্রে গণতন্ত্রের চর্চা প্রভৃতি বিষয়াদি প্রাঞ্জলভাবে আলােচনা করেন।

  • গ্রন্থের নাম : আমার দেখা নয়াচীন।
  • ইংরেজি সংস্করণ: New China 1952
  • প্রচ্ছদ ও গ্রন্থ-নকশা : তারিক সুজাত।
  • প্রচ্ছদে ব্যবহৃত সম্মেলনের লােগাে শান্তির কপােত : পাবলাে পিকাসো
  • প্রকাশক : বাংলা একাডেমি।
  • প্রথম প্রকাশ : ফেব্রুয়ারি ২০২০
  • ভূমিকা রচয়িতা : শেখ হাসিনা।
  • গ্রন্থস্বত্ব : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেমােরিয়াল ট্রাস্ট।

আমার দেখা নয়াচীন সম্পর্কিত কিছু প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন : ‘আমার দেখা নয়াচীন’ কী জাতীয় গ্রন্থঃ
উত্তর : স্মৃতিনির্ভর ভ্রমণকাহিনি।

প্রশ্ন : আমার দেখা নয়াচীন’ গ্রন্থে কত সালের ঘটনা আলােকপাত করা হয়েছে?
উত্তর : ১৯৫২ সালের ।

প্রশ্ন : চীনে অনুষ্ঠিত শান্তি সম্মেলনের নাম কী?
উত্তর : পিস কনফারেন্স অব দি এশিয়ান অ্যান্ড প্যাসিফিক রিজিওন্স।

প্রশ্ন : আমার দেখা নয়াচীন’ গ্রন্থের বর্ণনায় বার্মা (মিয়ানমার) নামক দেশটির কোন বিষয়গুলাে উঠে এসেছে?
উত্তর : আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ও আর্থ সামাজিক অবস্থার বিষয়গুলাে।

প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু দ্বিতীয়বার কত সালে চীন সফর করেন?
উত্তর : ১৯৫৭ সালে।

প্রশ্ন : দ্বিতীয়বার বঙ্গবন্ধুর চীন সফরের ছবিগুলাে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কে উপহার দেন?
উত্তর : সি চিন পিং।

প্রশ্ন : ১৯৫২ সালে বঙ্গবন্ধুর চীন সফরের ছবিগুলাে কোথায় রাখা ছিল?
উত্তর : বঙ্গবন্ধুর গ্রামের বাড়িতে।

প্রশ্ন : আমার দেখা নয়াচীন’ গ্রন্থটিতে বঙ্গবন্ধু চীনের বিষয়ে কী ভবিষ্যৎ ধারণা দিয়েছিলেন?
উত্তর : চীনের আজকের এই অভাবনীয় উন্নয়ন।

প্রশ্ন : আমার দেখা নয়াচীন’ ভ্রমণকাহিনির ইংরেজি অনুবাদ করেছেন কে?
উত্তর : ড. ফকরুল আলম

প্রশ্ন : শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু রচিত আমার দেখা নয়াচীন’ গ্রন্থের ভূমিকা কবে রচনা করেন?
উত্তর : ৭ ডিসেম্বর ২০১৯।

প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধুব্রহ্মদেশ সফরের সময় তখন কোন সরকার ক্ষমতায় ছিল?
উত্তর : উ ন সরকার।

প্রশ্ন : ক্যান্টন শহরে বঙ্গবন্ধুদের অভ্যর্থনা জানানাের সময় কী জােগান দেওয়া হয়েছিল?
উত্তর : ‘দুনিয়ায় শান্তি কায়েম হউক, মাও সে তুং- জিন্দাবাদ, নয়াচীন জিন্দাবাদ।

প্রশ্ন : ‘আমার দেখা নয়াচীন’ গ্রন্থে বঙ্গবন্ধু কোন জাতির প্রশংসা করেছেন?
উত্তর : ইংরেজ জাতির।

প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধুর মতে বিপদে পড়া বীরের জাত কারা?
উত্তর : জাপানিরা।

প্রশ্ন : শান্তি সম্মেলনে বাংলা ভাষায় কে কে বক্তৃতা করেন?
উত্তর : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং ভারতের মনােজ বসু।

প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু পিকিং শহরের বাজার ঘুরেও কোন পণ্য খুঁজে পাননি?
উত্তর : ব্লেড।

আরো কিছু প্রশ্নোত্তর…..

প্রশ্ন : শান্তি সম্মেলন চলাকালে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর সফর সঙ্গীরা কোন বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শনে যান?
উত্তর : নানকিং বিশ্ববিদ্যালয়।

প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু চীনে প্রথম সফরে কোন কোন শহর ঘুরেছিলেন?
উত্তর : পিকিং, তিয়ানজিং, নানবিং, ক্যান্টন ও হ্যাংচো শহর।

প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধুর খাবার টেবিলে চীনের কোন প্রদেশের গভর্নর বসেছিলেন?
উত্তর : সিং কিয়াং।

প্রশ্ন : নয়াচীনের স্বাধীনতা দিবস দেখার সময় বঙ্গবন্ধুর কোন দিবসের কথা মনে পড়েছিল?
উত্তর : ১৯৪৭ সালের পাকিস্তান দিবস।

প্রশ্ন : নানকিং শহরে পৌছে বঙ্গবন্ধুসহ অন্যান্যরা প্রথমেই কী দেখতে বের হয়েছিলেন?
উত্তর : চীনের জাতীয়তাবাদী নেতা সান ইয়াৎ-সেনের কবর।

প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু চীন সফরে যতগুলাে উপহার পেয়েছিলেন তার মধ্যে কোন উপহারটি সবচেয়ে মূল্যবান?
উত্তর : চীনা শ্রমিক দম্পতিদের দেওয়া ‘লিবারেশন পেন’ নামক কলমটিকে।

প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু চীনে কতদিন অবস্থান করেছিলেন?
উত্তর : ২৫ দিন।

About Bcs Preparation

BCS Preparation is a popular Bangla community blog site on education in Bangladesh. One of the objectives of BCS Preparation is to create a community among students of all levels in Bangladesh and to ensure the necessary information services for education and to solve various problems very easily.
View all posts by Bcs Preparation →

1 thought on “আমার দেখা নয়াচীন সম্পর্কিত যত তথ্য

Leave a Reply

Your email address will not be published.