বহিস্থ তহবিল

বহিস্থ অর্থায়নের দীর্ঘমেয়াদি উৎস

দীর্ঘমেয়াদি অর্থায়নের মেয়াদ হচ্ছে ৫ বছরের থেকে ঊর্ধ্বে যেকোনাে সময়কাল পর্যন্ত। দীর্ঘমেয়াদি তহবিলের উৎসগুলাের বিশেষ কিছু স্বকীয় বৈশিষ্ট্য আছে। আমরা এবার এই বৈশিষ্ট্যগুলাে আলােচনা করব। প্রথম বৈশিষ্ট্য এই যে দীর্ঘমেয়াদি অর্থায়নের মাধ্যমে সংগৃহীত তহবিলের আকার সাধারণত স্বল্পমেয়াদি ও মধ্যমেয়াদি উৎসের তুলনায় বড় হয়, ফলে এই তহবিল বিভিন্ন স্থায়ী সম্পত্তি যেমন: ভূমি, দালানকোঠা, যন্ত্রপাতি ইত্যাদি ক্রয়ের […]

বহিস্থ অর্থায়নের মধ্যমেয়াদি উৎস

এক বছরের ঊর্ধ্বে এবং পাঁচ বছর পর্যন্ত মেয়াদের জন্য সংগৃহীত তহবিল মধ্যমেয়াদি অর্থায়ন হিসেবে পরিগণিত। একটি প্রতিষ্ঠান মধ্যমেয়াদি তহবিল ব্যবহার করে ব্যবসায়ের চলমান মূলধনের দীর্ঘমেয়াদি প্রয়ােজন মিটায়। এই তহবিলের খরচ বা সুদের হার স্বল্পমেয়াদি তহবিলের খরচ হতে বেশি এবং দীর্ঘমেয়াদি তহবিলের খরচ হতে কম হয়। বিভিন্ন বৈশিষ্ট্যভেদে এর উৎস আললাচনা করা হলাে : বাণিজ্যিক ব্যাংক […]

বহিস্থ অর্থায়নের স্বল্পমেয়াদি উৎস

স্বল্পমেয়াদ বলতে এক বছর বা এক বছরের কম সময়কে বুঝানাে হয়। একটি প্রতিষ্ঠানের বেশিরভাগ অর্থায়ন মূলত স্বল্পমেয়াদি উৎস হতে সংগ্রহ করা হয়, যা এক বছর বা তার চেয়ে কম সময়ের মধ্যে পরিশােধযােগ্য। স্বল্পমেয়াদি অর্থায়নের ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানের বিশেষ কিছু সুবিধা থাকে। যেমন : প্রথমত, স্বল্পমেয়াদি উৎস হতে অর্থ সংস্থানের খরচ তুলনামূলকভাবে সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন দুইই হতে […]

Scroll to top