বাংলা ভাষা ও সাহিত্যবিসিএস প্রস্তুতি

৪১তম বিসিএস প্রিলিমিনারী প্রস্তুতির জন্য বাংলা ভাষা ও সাহিত্য পর্ব- ০২

৪১তম বিসিএস প্রিলিমিনারী প্রস্তুতির জন্য বাংলা ভাষা ও সাহিত্য পর্ব- ০২

BCS Preliminary Preparation Bangla Language and Literature Part- 02

বাংলা ভাষা

প্রয়ােগ-অপপ্রয়োেগ

  • ‘স্বস্ত্রীক’ ও ‘অশ্রুজল’ যে কারণে অশুদ্ধ- অপপ্রয়ােগজনিত।
  • ‘ছত্রচ্ছায়া’ শব্দের সঠিক প্রয়ােগ- ছত্রছায়া।
  • ‘সকল গণমাধ্যমগুলাে’ যে কারণে অশুদ্ধ- বহুবচনজনিত।
  • ‘কেবলমাত্র’ ও ‘সমতুল্য’ শব্দ দুটি যে কারণে অশুদ্ধ- শব্দ গঠনজনিত।

বানান ও বাক্য শুদ্ধি

বানান শুদ্ধি
  • অনিন্দ্য
  • আনুষঙ্গিক
  • ঔদ্ধত্য
  • কঙ্কণ
  • ঘূর্ণায়মান
  • টইটম্বুর
  • ন্যুজ
  • বন্ধ্যা
  • বিভীষিকা
  • মধুসূদন
  • শ্মশান
  • সন্ন্যাসী
  • পাণিনি
বাক্য শুদ্ধি

অশুদ্ধ : রচনাটির উৎকর্ষতা অনস্বীকার্য।
শুদ্ধ : রচনাটির উৎকর্ষ অনস্বীকার্য।

অশুদ্ধ : তিনি সাক্ষী দিতে রাজি হননি।
শুদ্ধ : তিনি সাক্ষ্য দিতে রাজি হননি।

অশুদ্ধ : তাহার জীবন সংশয়পন্ন।
শুদ্ধ : তাহার জীবন সংশয়াপন্ন।

অশুদ্ধ : রাজ পাপিষ্ঠ রানিকে শাস্তি দিলেন।
শুদ্ধ : রাজা পাপিষ্ঠা রানিকে শাস্তি দিলেন।

পারিভাষিক শব্দ

  • Edition- সংস্করণ
  • Virile- পুরুষােচিত
  • Amplitude- বিস্তার
  • Notification- প্রজ্ঞাপন
  • Hybrid- সংকর
  • Key note- মূল ভাব
  • Genocide- গণহত্যা
  • Worldview- জাগতিক দর্শন
  • Robot- যন্ত্রমানব
  • Portfolio- দপ্তর
  • Nomination- মনােনয়ন
  • Hygiene- স্বাস্থবিদ্যা
  • Deed- দলিল
  • Council- পরিষদ

সমার্থক শব্দ

  • কুল : তট, কিনারা, আশ্রয়, তীর, সৈকত
  • পৃথিবী : ধরা, ধরণি, মেদিনী, বসুন্ধরা, মর্ত্য।
  • রাত : নিশি, নিশা, রজনি, শর্বরী, ত্রিযামা, রাত্রি।
  • হাত : কর, বাহু, ভুজ, পাণি, হস্ত
  • স্বর্গ : বেহেশত, দেবলােক, অমরাবতী, ইন্দ্রলােক।

বিপরীতার্থক শব্দ

  • অর্পণ- গ্রহণ
  • অমরাবতী- নরক
  • ঈশান- নৈর্ঋত
  • ঐশ্বর্য- দারিদ্র্য
  • গৃহী- সন্ন্যাসী
  • নির্মল- পঙ্কিল
  • মনীষা- নির্বোধ
  • রমণীয়- কুৎসিত
  • সাদৃশ্য- বৈসাদৃশ্য
  • অনন্ত- সান্ত
  • রাশভারী- চঞ্চল

ধ্বনি ও বর্ণ

  • যে ধ্বনি উচ্চারণে বাধাপ্রাপ্ত হয়- ব্যঞ্জনধ্বনি।
  • বাংলা ভাষায় যৌগিক স্বরধ্বনির সংখ্যা- ২৫টি।
  • বর্গের দ্বিতীয় ও চতুর্থ ধ্বনিগুলাে যে ধ্বনি- মহাপ্রাণ।
  • ব্যঞ্জনধ্বনি উচ্চারণে যে ধ্বনির আগমন আবশ্যক- স্বরধ্বনি।
  • বাকস > বাসক ও পিশাচ > পিচাশ যে ধরনের ধ্বনি পরিবর্তন- ধ্বনি বিপর্যয়।
  • বাংলা বর্ণমালায় হ্রস্ব স্বর বর্ণ- ৪টি।
  • বাংলা বর্ণমালায় মাত্রাহীন বর্ণ- ১০টি।

শব্দ ও পদ

  • গঠন অনুসারে বাংলা ভাষার শব্দ- দুই প্রকার।
  • মস্তক, মাতা, গ্রাম, জ্যোৎস্না, কর্ণ শব্দগুলাে যে ভাষা থেকে আগত- সংস্কৃত ভাষা।
  • ‘ডেঙ্গু’ শব্দটি যে ভাষা থেকে এসেছে- স্প্যানিশ।
  • ‘পথে পথে’ যে ধরনের শব্দ- পদ দ্বৈত।
  • ‘লােভ’ শব্দের বিশেষণ রূপ- লুব্ধ।
  • বিভক্তিহীন নাম পদকে বলে- প্রাতিপদিক।
  • ‘হাট-বাজার’ শব্দটি যে দুটি ভাষার মিশ্রণ- বাংলা + ফারসি।
  • ম্যালেরিয়া, মাফিয়া, ম্যাজেন্টা প্রভৃতি যে ভাষার শব্দ- ইতালিয়ান।

বাক্য

  • বাক্যের পদগুলােকে অর্থসঙ্গতিক্রমে পরস্পর সন্নিবিষ্ট করাকে বলে- আসত্তি।
  • ‘যতই পরিশ্রম করবে ততই ফল পাবে’ যে ধরনের বাক্য- জটিল।
  • ‘পুকুরে পদ্মফুল জন্মে’ যে ধরনের বাক্য- সরল।
  • ‘ভিক্ষুককে দান কর’ যে ধ্বনের বাক্য- সরল।
  • বাংলাদেশ চিরজীবী হউক যে ধ্বনের বাক্য- অনুজ্ঞাসূচক।
  • ‘যতদিন বাচব, ততদিন দেশকে ভালবাসব’ যে ধরনের বাক্য- মিশ্র বা জটিল।

প্রত্যয়

  • সাহচর্য = সহচর + য
  • দীপ্যমান = দীপ + শানচ্
  • সৃষ্টি = সৃজ্ + তি
  • দৈনিক = দিন + ষ্ণিক
  • জীবন্ত = জীব্ + অন্ত
  • আত্মীয় = আত্মন + ঈয়
  • দর্শনীয় = দৃশ + অনীয়
  • যৌবন = যুবন + অ
  • মহিমা = মহৎ + ইমন
  • শৈশব = শিশু + অ

সন্ধি

  • বাংলা যে পদের সন্ধি হয় না- ক্রিয়াপদ
  • মনীষা = মনস্ + ঈষা
  • নিষ্ঠা = নিঃ + ঠা
  • নাবিক = নৌ + ইক
  • মৃন্ময় = মৃৎ + ময়
  • নদ্যম্বু = নদী + অম্বু
  • পশ্বধম = পশু + অধম
  • গায়ক = গৈ + অক
  • কিঞ্চিৎ = কিম্ + চিৎ
  • উড্ডীন = উৎ + ডীন
  • চিন্ময় = চিৎ + ময়
  • সংসদ = সম্ + সদ

সমাস

  • সমাসের রীতি যে ভাষা থেকে এসেছে- সংস্কৃত
  • যে যে পদে সমাস হয় তাদের প্রত্যেকটিকে বলে- সমস্যমান পদ
  • বৌভাত- কর্মধারয়
  • পঞ্চনদ- দিগু
  • আনত- অব্যয়ীভাব
  • কুশীলব- দ্বন্দ্ব
  • নীলাম্বর- কর্মধারয়
  • নীলবসনা- বহুব্রীহি
  • কদাচার- কর্মধারয়
  • পঞ্চনদ- দ্বন্দ্ব
  • নরাধম- কর্মধারয়
  • গোঁফ খেজুরে- বহুব্রীহি

এই বিভাগ থেকে আরো পড়ুন :

বাংলা সাহিত্য

প্রাচীন ও মধ্যযুগ

  • বাংলা সাহিত্যের প্রাচীনযুগ- ১২০০ খ্রিষ্টাব্দ।
  • মন্ত্রের সাধন কিংবা শরীর পাতন’ উক্তিটি যে কাব্যের অন্তর্গত- অন্নদামঙ্গল।
  • শ্রীচৈতন্যদেবের জীবনী গ্রন্থকে বলা হয়- কড়চা ।
  • জয়নরে চৌতিশা’ যার রচনা- শেখ ফয়জুল্লাহ।
  • চর্যাপদের পুঁথিগুলাে প্রথম বই আকারে প্রকাশ করে- বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষদ।
  • চর্যাপদ বাংলা ভাষায় রচিত একথা প্রথম প্রমাণ করেন- ড. সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায়।
  • চর্যাপদে মােট প্রবাদ বাক্য রয়েছে- ৬টি।
  • চর্যাপদের ভাষাকে যে ভাষা হিসেবে মনীষীরা অভিহিত করেছেন- সন্ধ্যা ভাষা।
  • চর্যাপদের যে পদটি টীকাকার ব্যাখ্যা করেননি- ১১ নং পদ।
  • চর্যাপদে সবচেয়ে বেশি পদ রচনা করেন- কাহ্নপা।
  • মনসামঙ্গল কাব্যের অপর নাম- পদ্মপুরাণ।
  • চমঙ্গল কাব্যের প্রধান চরিত্র- কালকেতু।
  • পুঁথি সাহিত্যের প্রাচীনতম লেখক- ফকির গরীবুল্লাহ।
  • সতীময়না ও লােরচন্দ্রানী’ কাব্যটি রচনা করেছেন- দৌলত কাজী।
  • ‘হপ্তপয়কর’ কাব্যটি যার রচনা- আলাওল।
  • প্রাচীনতম বাঙালি মুসলিম কবি- শাহ মুহম্মদ সগীর।
  • ‘সবার উপরে মানুষ সত্য তাহার উপরে নাই’ উক্তিটি- চন্ডিদাসের।

আধুনিক যুগ (১৮০০-বর্তমান)

  • ‘মােস্তফা চরিত’ গ্রন্থের রচয়িতা- মাওলানা আকরাম খাঁ।
  • ‘পদ্মা মেঘনা যমুনা’ উপন্যাসটি লিখেছেন- আবু জাফর শামসুদ্দীন।
  • ‘জন্ডিস ও বিবিধ বেলুন’ যে ধরনের রচনা নাটক।
  • আবোল-তাবােল’ গ্রন্থটি যার লেখা-সুকুমার রায়।
  • ‘সাত সাগরের মাঝি’ কাব্যগ্রন্থের রচয়িতা- ফররুখ আহমদ।
  • চতুর্দশপদী কবিতাবলি’ লিখেছেন- মাইকেল মধুসূদন দত্ত।
  • ‘ঢাকা মুসলিম সাহিত্য সমাজ’ প্রতিষ্ঠিত হয়-১৯২৬ সালে।
  • ‘শিখা’ পত্রিকার প্রথম সম্পাদক ছিলেন- আবুল হুসেন।
  • বাংলা ভাষার গবেষণা বিষয়ক প্রতিষ্ঠান বাংলা একাডেমির বিভাগ রয়েছে- চারটি।
  • হরিনাথ মজুমদার সম্পাদিত ‘গ্রামবার্তা প্রকাশিকা পত্রিকা প্রকাশিত হয়- ১৮৬৩ সালে।
  • বাংলা সাহিত্যের প্রথম মনস্তাত্ত্বিক উপন্যাস- চোখের বালি।
  • হাঁসুলী বাঁকের উপকথা’ উপন্যাসের রচয়িতা- তারাশঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যায়।
  • ‘নূরলদীনের সারাজীবন’ যে ধরনের সাহিত্যকর্ম- কাব্যনাট্য।
  • ‘নকশী কাঁথার মাঠ’ কাব্যগ্রন্থের’ নায়িকার নাম- সাজু।
  • মীর মশাররফ হােসেনের জন্মস্থান- লাহিনীপাড়া, কুষ্টিয়া।
  • কাজী নজরুর ইসলাম একুশে পদক লাভ করেন- ১৯৭৬ সালে।
  • প্যারীচাদ মিত্রের নাম- টেকচাঁদ ঠাকুর।
  • বাংলা সাহিত্যে অমিত্রাক্ষর ছন্দে রচিত প্রথম কাব্যগ্রন্থ- তিলােত্তমাসবে কাবা।
  • ‘নীলদর্পণ’ নাটকের কাহিনি যে অঞ্চলের- মেহেরপুর।
  • ‘উদাসীন পথিকের মনের কথা যে ধরনের গ্রন্থ- আত্মজীবনীমূলক।
  • ‘চাচা-কাহিনী’ ও ‘টুনিমেম’ গল্পের রচয়িতা- সৈয়দ মুজতবা আলী।
  • মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রথম প্রকাশিত গল্প- অতসীমামী।

শেয়ার করুন

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button