জুলাই ২৬, ২০২১
Home » 41th Bcs Question Solution PDF | ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান
BCS Question Bank PDF পিডিএফ ডাউনলোড

41th Bcs Question Solution PDF | ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF | ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান নিয়ে আমাদের আজকের আলোচনা। আসা করি লেখাটি আপনাদের উপকারে আসবে। 41th Bcs Question Solution PDF | ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান এর পিডিএফ ডাউনলোড করতে নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুন।

Download Here

41th Bcs Question Solution PDF | ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান পড়ে নিন

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

41th Bcs Question Solution PDF ব্যাখ্যাসহ ৪১তম বিসিএস প্রশ্ন সমাধান

১। ‘Why, then, ’tis none to you, for there is nothing either good or bad, but thinking makes it so.’ This extract is taken from the drama

(ক) King Lear
(খ) Macbeth
(গ) As You Like It
(ঘ) Hamlet
উত্তর : ঘ

ব্যাখ্যা : ‘Why, then, ’tis none to you, for there is nothing either good or bad, but thinking makes it so.’ উক্তিটি William Shakespeare রচিত ‘Hamlet’ নামক Tragedy থেকে নেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, Hamlet নাটকটি William Shakespeare রচিত Tragedy। ডেনমার্কের রাজহত্যা ও রাজপুত্রের প্রলম্বিত প্রতিশােধ এ নাটকের মূল বিষয়বস্তু। ধারণা করা হয়, Thomas kyd এর ‘The Spanish Tragedy’ অনুকরণে ‘Hamlet’ নাটকটি লিখা হয়েছিলাে।

২। Made weak by time and fate, but strong in will To strive, to seek, to find, and not to yield is taken from the poem written by
(ক) Robert Browning
(খ) Matthew Arnold
(গ) Alfred Tennyson
(ঘ) Lord Byron
উত্তর : গ

ব্যাখ্যা: Alfred Lord Tennyson ছিলেন ‘The Victorian Period’ এর অন্যতম প্রসিদ্ধ কবি। Wordsworth এর মৃত্যুর পর ১৮৫০ সালে তিনি ইংল্যান্ডের রাজকবি (Poet Laureate) হয়েছিলেন। Tennyson রচিত বিখ্যাত কবিতা ‘Ulysses’ এর শেষ দুটি লাইন হলাে
‘Made weak by time and fate, but strong in will
To strive, to find, and not to yield.’

৩। ‘Give somebody a piece of your mind’ means to
(ক) tell someone that you are very angry with them.
(খ) say exactly what you feel or think.
(গ) return or to help somebody return to a normal situation.
(ঘ) give somebody mental peace.
উত্তর : ক

ব্যাখ্যা: ‘Give somebody a piece of your mind’-idiom টির অর্থ কারাে সাথে রাগ করে কথা বলা/ এমনভাবে কথা বলা যাতে শ্রোতা বুঝতে পারে বক্তা তার উপর রাগান্বিত (বিশেষত শ্রোতার কোন কর্মের কারণে)। Cambridge Dictionary অনুযায়ী, ‘Give somebody a piece of your mind’ অর্থ to speak angrily to someone about something they have done wrong.

৪। ‘To win a prize is my ambition.’ The underlined part of the sentence is a/an
(ক) adjective phrase
(খ) noun phrase
(গ) adverb phrase
(ঘ) conjunctional phrase
উত্তর:খ

ব্যাখ্যা: একটি Phrase যখন কোন বাক্যে Noun এর কাজ করে অর্থাৎ subject, object, subject complement, object complement, preposition-এর object কিংবা appositive হিসেবে বসে তখন তাকে Noun Phrase বলে। প্রশ্নোক্ত বাক্য- ‘To win a prize is my ambition’-এ ‘To win a prize’ phrase টি verb (is) এর subject হিসেবে কাজ করেছে, তাই এটি Noun Phrase।

৫। Choose the word opposite in meaning to ‘terse’:
(ক) concise
(খ) detailed
(গ) expressive
(ঘ) descriptive
উত্তর : খ

ব্যাখ্যা: ‘Terse’ শব্দের অর্থ হলাে সংক্ষিপ্ত/বাহুল্যবর্জিত। এবার option গুলাে দেখা যাক। (ক) concise- সংক্ষিপ্ত (খ) detailed – বিস্তারিত/সাময়িক (গ) expressive – অভিব্যক্তিপূর্ণ (ঘ) descriptive – বর্ণনামূলক প্রদত্ত option-সমূহ বিবেচনায় option (খ) ও (ঘ) উভয়ই কোন না কোন ভাবে ‘Terse’ এর বিপরীত অর্থ (opposite meaning) প্রকাশ করে বলে প্রতীয়মান হলেও তুলনামূলক better option হিসেবে option (খ)-কেই উত্তর করা অধিক গ্রহণযােগ্য হবে কেননা ‘Detailed’ শব্দটি সরাসরি ‘Terse’ এর বিপরীত অর্থ প্রকাশ করছে।

৬। What is the noun form of the word ‘know?
(ক) knowing
(খ) knowledge
(গ) knowledgeable
(ঘ) known
উত্তর: খ

ব্যাখ্যা : Know (জানা) হচ্ছে verb যার বিভিন্ন form নিম্নরুপ : (ক) knowing (চতুর): Adjective (খ) knowledge (জ্ঞান): Noun (গ) knowledgeable (জানাশোনা): Adjective (ঘ) known (পরিচিত): Adjective. সুতরাং সঠিক উত্তর : option B

৭। ‘I shall help you provided you obey me.’ Here the underlined word is a/an
(ক) adverb
(খ) adjective
(গ) conjunction
(ঘ) verb
উত্তর : গ

ব্যাখ্যা : ‘Provided’ একটি Conjunction যা ‘শর্ত থাকে যে/ এই শর্তে’ অর্থে বাক্যে ব্যবহৃত হয়ে clause-6P 119 করে। যেমন- The flight will take off provided (that) the weather is good অর্থাৎ আবহাওয়া ভালাে থাকলে (ভালাে থাকার শর্তে) ফ্লাইট উড্ডয়ন করবে।

৮। Identify the correct spelling:
(ক) questionaire
(খ) questionoir
(গ) questionnaire
(ঘ) questionair
উত্তর : গ

ব্যাখ্যা : সঠিক বানান Questionnaire (মনে রাখার কৌশল : Question nai re – কোশ্চেন নাই রে )

৯। Find out the correct passive form of the sentence ‘Who taught you French?’
(ক) By whom you were taught French?
(খ) By whom French was taught you?
(গ) French was taught you by whom?
(ঘ) By whom were you taught French?
উত্তর : ঘ

১০। Select the correct comparative form of the sentence ‘A string of pearls was not so bright as her teeth’
(ক) Her teeth was more brighter than a string of pearls.
(খ) Her teeth were brighter than a string of pearls
(গ) A string of pearls was brighter than her teeth.
(ঘ) A string of pearls were very bright than her teeth
উত্তর : খ

৩৩। ‘Huffing and puffing, we arrived at the classroom door with only seven seconds to spare.’ In
this sentence the verb ‘arrived’ is
(ক) intransitive
(খ) transitive
(গ) causative
(ঘ) defective
উত্তর:ক

ব্যাখ্যা: যে verb অন্য কোনাে word (object) এর সাহায্য ছাড়াই sentence-এর অর্থ সম্পূর্ণরূপে প্রকাশ করতে পারে এবং যে verb এর কোন object থাকে না তাকে Intransitive verb (অকর্মক ক্রিয়া) বলে। প্রদত্ত প্রশ্নে ‘We arrived…….’অর্থাৎ আমরা পৌছেছিলাম অর্থ প্রকাশে ‘arrived’ verb-টি কোন object এর সাহায্য ছাড়াই বাক্যের অর্থ প্রকাশ করতে পারছে; তাই এটি এ বাক্যে Intransitive verb। আরাে কিছু Intransitive verb-এর উদাহরণ হলাে: • Birds fly • River flows এখানে fly, flow এবং open হলাে Intransitive verb The door opened automatically

৩৪। Which one of the following is a common gender?
(ক) king
(31) sovereign
(গ) emperor
(ঘ) queen
উত্তর:খ

ব্যাখ্যা:
A. King – Masculine Gender
B. Emperor – Masculine Gender
C. Sovereign – common
D. Queen – Feminine Gender
[Note: King এর Feminine হলো Queen এবং Emperor এর feminine হলো Empress]

৩৫। ‘Who’s that?’ In this sentence ‘that’ is a/an
(ক) pronoun
(খ) conjunction
(গ) adjective
(ঘ) adverb
উত্তর:ক

ব্যাখ্যা: ‘Who’s that’ প্রদত্ত বাক্যে that হলাে demonstrative pronoun। বিভিন্ন ধরনের parts of speech হিসেবে ‘that’ এর ব্যবহার নিম্নরূপ:

1. Demonstrative Pronoun What’s that? That is what I need
2. Relative Pronoun The book that I want is preceptors’
3. Demonstrative Adjective What is that noise?
4. Adverb I have done that much only.
5. Conjunction Mili worked hard so that she could succeed.

৩৬। লাহােরে অনুষ্ঠিত OIC শীর্ষ সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু কবে যােগদান করেন?
(ক) ২০-২১ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৪
(খ) ২৩-২৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৪
(গ) ২৫-২৬ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৪
(ঘ) ২৭-২৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৪
উত্তর : খ

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে পাকিস্তানের লাহােরে ১৯৭৪-এর ২২-২৪ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত ওআইসির দ্বিতীয় শীর্ষ সম্মেলনে সদস্য হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে যােগ দেয়। উল্লেখ্য, ইসরাইল ১৯৬৯ সালে ২১ আগস্ট আল-আকসা মসজিদে আগুন লাগিয়ে দেয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ১৯৬৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসের ২২-২৫ তারিখে অনুষ্ঠিত কতগুলাে মুসলমানপ্রধান দেশের একটি শীর্ষ সম্মেলনে ইসলামী সম্মেলন সংস্থা (ওআইসি) মরক্কোর রাবাতে প্রতিষ্ঠিত হয়।

৩৭। বঙ্গবন্ধুকে কখন ‘জুলিও কুরী’ শান্তি পুরস্কার প্রদান করা হয়?
(ক) ২০ মে ১৯৭২
(খ) ২১ মে ১৯৭২
(গ) ২২ মে ১৯৭২
(ঘ) ২৩ মে ১৯৭২
উত্তর:ঘ

ব্যাখ্যা: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ১৯৭৩ সালের ২৩ মে বিশ্ব শান্তি পরিষদ কর্তৃক ‘জুলিও কুরি’ শান্তি পদকে ভূষিত করা হয়। বিশ্ববিখ্যাত বিজ্ঞানী ম্যারি কুরি ও পিয়েরে কুরি দম্পতি বিশ্ব শান্তির সংগ্রামে যে অবদান রেখেছেন, তা স্মরণীয় করে রাখতে বিশ্ব শান্তি পরিষদ ১৯৫০ সাল থেকে ‘জুলিও কুরি’ শান্তি পদকে প্রদান করে আসছে। [Note: বঙ্গবন্ধুকে ‘জুলিও কুরী’ শান্তি পুরস্কার প্রদানের জন্য প্রস্তাব করা হয় ১৯৭২ সালে এবং প্রদান করা হয় ১৯৭৩ সালের ২৩ মে।]

৩৮। ঐতিহাসিক ছয় দফার দাবিতে যে বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত ছিল না
(ক) শাসনতান্ত্রিক কাঠামাে
(খ) কেন্দ্রীয় সরকারের ক্ষমতা
(গ) স্বতন্ত্র মুদ্রা ব্যবস্থা
(ঘ) বিচার ব্যবস্থা
উত্তর : ঘ

ব্যাখ্যা: ২৩ মার্চ, ১৯৬৬ লাহােরে এক সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিকভাবে ৬ দফা ঘােষণা করেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান । ৬ দফার বিষয়বস্তু হলাে: ১. রাষ্ট্রের প্রকৃতি ও শাসন ব্যবস্থা ২. কেন্দ্রীয় সরকারের ক্ষমতা ৩. মুদ্রা সংক্রান্ত ক্ষমতা ৪. ট্যাক্স, খাজনা ধার্য ও সংগ্রহ সংক্রান্ত ক্ষমতা ৫. বৈদেশিক বাণিজ্যের ক্ষমতা ৬.প্যারামিলিশিয়া বাহিনী গঠন।

৩৯। মাৎস্যন্যায় বাংলার কোন সময়কাল নির্দেশ করে?
(ক) ৫ম-৬ষ্ঠ শতক
(খ) ৬ষ্ঠ-৭ম শতক
(গ) ৭ম-৮ম শতক
(ঘ) ৮ম-৯ম শতক
উত্তর : গ

ব্যাখ্যা: শশাংকের মৃত্যুর পর দীর্ঘদিন বাংলায় কেন্দ্রীয় শাসন শক্ত হাতে ধরার মতাে কোনাে যােগ্য শাসক ছিলেন না। ফলে রাজ্যে বিশৃঙ্খলা ও অরাজকতা দেখা দেয়। এ অরাজকতার সময়কালকে (৭ম-৮ম শতক) পাল তাম্রশাসনে আখ্যায়িত করা হয়েছে ‘মাৎস্যন্যায়’ বলে।

৪০। বাংলার কোন সুলতানের শাসনামলকে স্বর্ণযুগ বলা হয়?
(ক) শামসুদ্দীন ইলিয়াস শাহ।
(খ) নাসিরুদ্দীন মাহমুদ শাহ।
(গ) আলাউদ্দিন হােসেন শাহ।
(ঘ) গিয়াসউদ্দিন আজম শাহ
উত্তর : গ

ব্যাখ্যা: বাংলার স্বাধীন সুলতানদের মধ্যে হুসেন শাহি আমল (১৪৯৩-১৫৩৮ খ্রিস্টাব্দ) ছিল সবচেয়ে গৌরবময়। আলাউদ্দিন হুসেন শাহের সময়ই বাংলার রাজ্যসীমা সবচেয়ে বেশি বৃদ্ধি পায়। তাঁর ২৬ বছরের শাসনকালে বঙ্গে জ্ঞান-বিজ্ঞান ও শিল্পকলার অভাবিত উন্নতি সাধিত হয়েছিল। এজন্য তাঁর শাসনকালকে বঙ্গের মুসলমান শাসনের ইতিহাসে স্বর্ণযুগ বলা হয় ।

৪১। বাংলায় সেন বংশের (১০৭০-১২৩০ খ্রিষ্টাব্দ) শেষ শাসনকর্তা কে ছিলেন?
(ক) হেমন্ত সেন
(খ) বল্লাল সেন
(গ) লক্ষণ সেন
(ঘ) কেশব সেন।
উত্তর : ঘ

ব্যাখ্যা: ১২০৬ খ্রিস্টাব্দে লক্ষ্মণসেনের মৃত্যুর পর তাঁর দুই পুত্র বিশ্বরূপসেন ও কেশবসেন যথাক্রমে সিংহাসনে বসেন। লক্ষ্মণসেনের বংশধরগণ অন্তত ১২৪৫ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত রাজত্ব করেন কিন্তু কেশবসেনের পর সেনগণ বাংলায় রাজত্ব করেছিলেন এমন কোনাে প্রমাণ এখনও পাওয়া যায়নি। তাই সঠিক উত্তর কেশব সেন। উল্লেখ্য, প্রশ্নটিতে সেন বংশের সময়কাল ১০৭০১২০৬ খ্রিস্টাব্দ উল্লেখ থাকলে লক্ষ্মণ সেনই সঠিক উত্তর হতাে।

৪২। বাংলার সর্বপ্রাচীন জনপদের নাম?
(ক) পুন্ড্র
(খ) তাম্রলিপ্তি
(গ) গৌড়
(ঘ) হরিকেল
উত্তর:ক

ব্যাখ্যা: প্রাচীন সভ্যতার নিদর্শনের দিক দিয়ে পুই ছিল প্রাচীন বাংলার সবচেয়ে সমৃদ্ধ ও প্রাচীন জনপদ। বর্তমান বগুড়া, রংপুর, রাজশাহী ও দিনাজপুর অঞ্চল নিয়ে এ পুণ্ড্র জনপদটির সৃষ্টি হয়েছিল। পুদের রাজ্যের রাজধানীর নাম ছিল পুণ্ড্রনগর। পরবর্তীকালে এর নাম হয় মহাস্থানগড়। মহাস্থানগড় প্রাচীন পুণ্ড নগরীর ধ্বংসাবশেষ বলে পণ্ডিতেরা মনে করেন।

৪৩। কাগমারী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়
(ক) রােজ গার্ডেনে
(খ) সিরাজগঞ্জে
(গ) সন্তোষে
(ঘ) সুনামগঞ্জে
উত্তর:গ

ব্যাখ্যা: আওয়ামী লীগের সার্বিক তত্ত্বাবধানে টাঙ্গাইল জেলার সন্তোষে ১৯৫৭ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হয় কাগমারী সম্মেলন’; সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী; প্রধান অতিথি ছিলেন হােসেন শহীদ সােহরাওয়ার্দী; সম্মেলনের প্রধান এজেন্ডা ছিল পূর্ব পাকিস্তানের স্বায়ত্তশাসন ও বৈদেশিক নীতি।

৪৪। মুক্তিযুদ্ধকালে কোলকাতার ৮, থিয়েটার রােডে ‘বাংলাদেশ বাহিনী’ কখন গঠন করা হয়?
(ক) এপ্রিল ১০, ১৯৭১
(খ) এপ্রিল ১১, ১৯৭১
(গ) এপ্রিল ১২, ১৯৭১
(ঘ) এপ্রিল ১৩, ১৯৭১
উত্তর: গ

৪৫। কোন অনুচ্ছেদ বলে বাংলাদেশের সংবিধানের মৌলিক বিধানাবলী পরিবর্তনযােগ্য নয়?
(ক) অনুচ্ছেদ ৭
(খ) অনুচ্ছেদ ৭ (ক)
(গ) অনুচ্ছেদ ৭(খ)
(ঘ) অনুচ্ছেদ ৮
উত্তর : গ

ব্যাখ্যা: সংবিধানের ৭(খ) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী সংবিধানের মৌলিক বিধানাবলী সংশােধন অযােগ্য: “সংবিধানের ১৪২ অনুচ্ছেদে যাহা কিছুই থাকুক না কেন, সংবিধানের প্রস্তাবনা, প্রথম ভাগের সকল অনুচ্ছেদ, দ্বিতীয় ভাগের সকল অনুচ্ছেদ, নবম-ক ভাগে একাদশ ভাগের ১৫০ অনুচ্ছেদসহ সংবিধানের অন্যান্য মৌলিক কাঠামাে সংক্রান্ত অনুচ্ছেদসমূহের বিধানাবলী সংযােজন, পরিবর্তন, প্রতিস্থাপন, রহিতকরণ কিংবা অন্য কোন পন্থায় সংশােধনের অযােগ্য হইবে।”-অনুচ্ছেদ ৭(খ)।

৪৬। সংবিধানের কোন অনুচ্ছেদ এর আলােকে বাংলাদেশের বৈদেশিক নীতি পরিচালিত হয়?
(ক) অনুচ্ছেদ ২২
(খ) অনুচ্ছেদ ২৩
(গ) অনুচ্ছেদ ২৪
(ঘ) অনুচ্ছেদ ২৫
উত্তর : ঘ

ব্যাখ্যা: সংবিধানের ২৫ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী বাংলাদেশের বৈদেশিক নীতি পরিচালিত হয়। “আন্তর্জাতিক শান্তি, নিরাপত্তা ও সংহতির উন্নয়ন: জাতীয় সার্বভৌমত্ব ও সমতার প্রতি শ্রদ্ধা, অন্যান্য রাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ না করা, আন্তর্জাতিক বিরােধের শান্তিপূর্ণ সমাধান এবং আন্তর্জাতিক আইনের ও জাতিসংঘের সনদে বর্ণিত নীতিসমূহের প্রতি শ্রদ্ধা-এই সকল নীতি হইবে রাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ভিত্তি এবং এই সকল নীতির ভিত্তিতে রাষ্ট্র….।”-অনুচ্ছেদ ২৫

৪৭। বাংলাদেশের সর্ব দক্ষিণে কোনটি অবস্থিত?
(ক) দক্ষিণ তালপট্টি
(খ) সেন্টমার্টিন
(গ) নিঝুম দ্বীপ
(ঘ) ভােলা
উত্তর:খ

ব্যাখ্যা: সেন্টমার্টিন দ্বীপ বঙ্গোপসাগরে অবস্থিত বাংলাদেশের একমাত্র সামুদ্রিক প্রবাল দ্বীপ। স্থানীয় নাম নারিকেল জিঞ্জিরা। সেন্টমার্টিন দ্বীপের দক্ষিণাংশ ঘেঁড়া দ্বীপ নামে পরিচিত। জোয়ারের সময় দ্বীপটি সেন্টমার্টিন হতে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। এটি বাংলাদেশের সর্বদক্ষিণের স্থান।

৪৮। বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী ভারতের রাজ্য কয়টি?
(ক) ৩টি।
(খ) ৪টি
(গ) ৫টি
(ঘ) ৬টি
উত্তর : গ

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশের সাথে ভারতের সীমান্তবর্তী রাজ্য ৫টি। যথা- আসাম, মিজোরাম, ত্রিপুরা, মেঘালয়, পশ্চিমবঙ্গ (শর্ট টেকনিক: আমিত্রি মেঘের পরে)। বাংলাদেশের সাথে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের সীমান্তবর্তী জেলা ৯টি। যথা- মুর্শিদাবাদ, নদীয়া, উত্তর চব্বিশ পরগনা, মালদহ, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর, জলপাইগুড়ি, কুচবিহার এবং দার্জিলিং।

৪৯। কোন বীরশ্রেষ্ঠের দেহাবশেষ বাংলাদেশে এনে বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমানের কবরের পাশে সমাহিত করা হয়?
(ক) সিপাহী মােস্তফা কামাল
(খ) ল্যান্স নায়েক মুন্সি আব্দুর রউফ
(গ) ল্যান্স নায়েক নূর মােহাম্মদ শেখ
(ঘ) সিপাহী হামিদুর রহমান
উত্তর : ঘ

ব্যাখ্যা: বীরশ্রেষ্ঠ সিপাহি হামিদুর রহমান ১৯৫৩ সালের ২ ফেব্রুয়ারি ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলার খর্দ খালিশপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বীরশ্রেষ্ঠদের মাঝে সর্বকনিষ্ঠ। মুক্তিযুদ্ধের সময় তাঁর বয়স ছিল মাত্র ১৮ বছর। হামিদুর রহমান ২৮ অক্টোবর ১৯৭১ সালে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে শহীদ হলে তাঁর মৃতদেহ সীমান্তের অল্প দূরে ভারতীয় ভূখণ্ডে ত্রিপুরা রাজ্যের হাতিমেরছড়া গ্রামের স্থানীয় এক পরিবারের পারিবারিক গােরস্তানে দাফন করা হয়। পরে ২০০৭ সালে ১০ ডিসেম্বর তাঁর দেহাবশেষ ঢাকার বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে সমাহিত করা হয়।

৫০। কে বীরশ্রেষ্ঠ নন?
(ক) হামিদুর রহমান।
(খ) মােস্তফা কামাল
(গ) মুন্সি আব্দুর রহিম
(ঘ) নূর মােহাম্মদ শেখ
উত্তর : গ

ব্যাখ্যা: ৭ জন বীরশ্রেষ্ঠ হলেন- ১. ল্যান্স নায়েক মুন্সি আবদুর রউফ, ২. সিপাহি মােহাম্মদ মােস্তফা কামাল, ৩. ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মতিউর রহমান, ৪. ল্যান্স নায়েক নূর মােহাম্মদ শেখ, ৫. সিপাহি মােহাম্মদ হামিদুর রহমান, ৬. ইঞ্জিনরুম আর্টিফিসার রুহুল আমিন, ৭. ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর।

৫১। বাংলাদেশের প্রথম সাধারণ নির্বাচন কখন অনুষ্ঠিত হয়?
(ক) ৭ মার্চ ১৯৭৩
(খ) ১৭ মার্চ ১৯৭৩
(গ) ২৭ মার্চ ১৯৭৩
(ঘ) ৭ মার্চ ১৯৭৪
উত্তর:ক

ব্যাখ্যা: ৭ই মার্চ, ১৯৭৩ স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথম সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনসহ ৩১৫টি আসনের মধ্যে ৩০৪টি আসন লাভ করে নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নিরঙ্কুশ বিজয় অর্জন করে।

৫২। পাকিস্তান কবে বাংলাদেশকে একটি সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয়?
(ক) ফেব্রুয়ারি ২০, ১৯৭৪
(খ)ফেব্রুয়ারি ২১, ১৯৭৪
(গ) ফেব্রুয়ারি ২২, ১৯৭৪
(ঘ) ফেব্রুয়ারি ২৩, ১৯৭৪
উত্তর:গ

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশকে স্বীকৃত প্রদানকারী কয়েকটি দেশের নাম:

দেশের নাম স্বীকৃতি প্রদান
ভুটান (বাংলাদেশকে প্রথম স্বীকৃতিদানকারী দেশ) সূত্র: বাংলাদেশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ৬ ডিসেম্বর, ১৯৭১
ভারত (দ্বিতীয় স্বীকৃতিদানকারী দেশ, ভুটানের কয়েক ঘণ্টা পরে)। ৬ ডিসেম্বর, ১৯৭১
পূর্ব জার্মানি (স্বীকৃতিদানকারী প্রথম ইউরােপীয় দেশ)। ১১ জানুয়ারি, ১৯৭২
পােল্যান্ড (প্রথম সমাজতান্ত্রিক দেশ) ১২ জানুয়ারি, ১৯৭২
বার্বাডােস (প্রথম উত্তর আমেরিকান দেশ) ২০ জানুয়ারি, ১৯৭২
সােভিয়েত ইউনিয়ন ২৪ জানুয়ারি, ১৯৭২
যুক্তরাজ্য ৪ ফেব্রুয়ারি, ১৯৭২
মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া (স্বীকৃতিদানকারী প্রথম এশীয় মুসলিম দেশ) ২৫ ফেব্রুয়ারি, ১৯৭২
যুক্তরাষ্ট্র ৪ এপ্রিল, ১৯৭২
ভেনিজুয়েলা (প্রথম দক্ষিণ আমেরিকান দেশ) ২ মে, ১৯৭২
ইরাক (স্বীকৃতিদানকারী প্রথম আরব দেশ) ৮ জুলাই, ১৯৭২
পাকিস্তান ২২ ফেব্রুয়ারি, ১৯৭৪
সৌদি আরব ১৬ আগস্ট, ১৯৭৫
চীন ৩১ আগস্ট, ১৯৭৫
সেনেগাল (স্বীকৃতিদানকারী প্রথম অনারব ও আফ্রিকান মুসলিম দেশ) ১ ফেব্রুয়ারি, ১৯৭২
আরো পড়ুন :   ৪০তম বিসিএস প্রিলিমিনারী পরীক্ষার প্রশ্ন ব্যাখ্যাসহ সমাধান

৫৩। বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের প্রথম সংসদ নেতা কে?
(ক) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।
(খ) মােহাম্মদউল্লাহ।
(গ) তাজউদ্দিন আহমদ।
(ঘ) ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী
উত্তর : ক

ব্যাখ্যা: প্রথম জাতীয় সংসদ (৭ এপ্রিল ১৯৭৩ – ৬ নভেম্বর ১৯৭৫) ১৯৭৩ সালের ৭ মার্চ প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের নিয়ে গঠিত হয়। এ সংসদ ২ বছর ৬ মাস স্থায়ী ছিল। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এই সংসদের নেতা, মােহাম্মদউল্লাহ সংসদের স্পিকার এবং মােহাম্মদ বায়তুল্লাহ ডেপুটি স্পিকার নির্বাচিত হন। পরবর্তীতে মােহাম্মদউল্লাহ রাষ্ট্রপতি হওয়ার পর আব্দুল মালেক উকিল স্পিকার নির্বাচিত হন। প্রথম সংসদে কোন বিরােধীদলীয় নেতা ছিলেন না।

৫৪। বাংলাদেশের সংবিধানের ত্রয়ােদশ সংশােধনীর মূল বিষয় ছিল?
(ক) বহুদলীয় ব্যবস্থা
(খ) বাকশাল প্রতিষ্ঠা
(গ) তত্ত্বাবধায়ক সরকার
(ঘ) সংসদে মহিলা আসন
উত্তর:গ

ব্যাখ্যা: ১৯৯৬ সালের ২৭ মার্চ ত্রয়ােদশ সংশােধনীর মাধ্যমে সংবিধানে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য নিরপেক্ষনির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা প্রবর্তন করা হয়। আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী জমির উদ্দিন সরকার এই সংশােধনীটি উত্থাপন করেন। এটি ২৬৮-০ ভােটে পাস হয়। রাষ্ট্রপতির অনুমােদন পায় ২৮ মার্চ। উচ্চ আদালতের আদেশে ২০১১ সালে এই সংশােধনীটি বাতিল হয়।

৫৫। সংবিধানের চেতনার বিপরীতে সামরিক শাসনকে বৈধতা দিতে কোন তফসিলের অপব্যবহার করা হয়?
(ক) ৪র্থ তফসিল
(খ) ৫ম তফসিল
(গ) ৬ষ্ঠ তফসিল
(গ) ৭ম তফসিল
উত্তর:ক

আরো পড়ুন :   ৩১তম বিসিএস প্রিলিমিনারী পরীক্ষার প্রশ্ন ব্যাখ্যাসহ সমাধান

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশের সংবিধানের তফসিল।

প্রথম তফসিল  অন্যান্য বিধান সত্ত্বেও কার্যকর আইন।
দ্বিতীয় তফসিল রাষ্ট্রপতি নির্বাচন (বিলুপ্ত]
তৃতীয় তফসিল শপথ ও ঘােষণা।
চতুর্থ তফসিল ক্রান্তিকালীন ও অস্থায়ী বিধানাবলি
পঞ্চম তফসিল ৭ মার্চ, ১৯৭১ ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দেওয়া ঐতিহাসিক ভাষণ।
ষষ্ঠ তফসিল ২৫ মার্চ, ১৯৭১ মধ্যরাত শেষে অর্থাৎ ২৬ মার্চ প্রথম প্রহরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্তৃক প্রদত্ত স্বাধীনতার ঘােষণা।
সপ্তম তফসিল ১০ এপ্রিল, ১৯৭১ এর মুজিবনগর সরকারের জারিকৃত স্বাধীনতার ঘােষণাপত্র।

৫৬। কোন উপজাতিটির আবাসস্থল “বিরিশিরি’ নেত্রকোনায়?
(ক) সাঁওতাল
(খ) গারাে
(গ) খাসিয়া 
(গ) মুরং
উত্তর : খ

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশের বৃহত্তর ময়মনসিংহ জেলায় বসবাসকারী ক্ষুদ্র নৃগােষ্ঠীগুলাের মধ্যে গারােরা হলাে সংখ্যাগরিষ্ঠ।গারােরা ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইলের মধুপুর, নেত্রকোনা, শেরপুর, জামালপুর ও গাজীপুরের শ্রীপুরে বাস করে। বৃহত্তর সিলেট জেলায়ও কিছু সংখ্যক গারাে রয়েছে।

৫৭। প্রান্তিক হ্রদ কোন জেলায় অবস্থিত?
(ক) রাঙ্গামাটি
(খ) খাগড়াছড়ি
(গ) বান্দরবান
(ঘ) সিলেট
উত্তর : গ

ব্যাখ্যা: প্রান্তিক হ্রদ বান্দরবান জেলায় অবস্থিত। এছাড়াও বান্দরবানে বগা লেক, বাংলাদেশের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ তাজিংডং (বিজয়), মেঘলা, শৈলপ্রপাত, নীলগিরি ও নীলাচল ইত্যাদি অবস্থিত।

৫৮। আলুটিলা প্রাকৃতিক গুহা কোথায় অবস্থিত?
(ক) খাগড়াছড়ি জেলায়
(খ) রাঙ্গামাটি জেলায়
(গ) বান্দরবান জেলায়
(ঘ) কক্সবাজার জেলায়
উত্তর : ক

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশের প্রাকৃতিক গুহা আলুটিলা খাগড়াছড়ি জেলায় অবস্থিত। এছাড়াও এখানে হালদা ভ্যালি, বৌদ্ধ বিহার, চাকমা রাজার রাজবাড়ি, প্রভৃতি অবস্থিত।

৫৯। স্টিভ চেন ও চাড হারলির সাথে যৌথভাবে কোন বাংলাদেশী ইউটিউব (YouTube) প্রতিষ্ঠা করেন?
(ক) জাবেদ করিম
(খ) ফজলুল করিম
(গ) জাওয়াদুল করিম
(ঘ) মঞ্জুরুল করিম
উত্তর : ক

ব্যাখ্যা: জাবেদ/জাওয়েদ করিম (জন্ম ১৯৭৯) জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইট ইউটিউবের সহ-প্রতিষ্ঠাতা। তার জন্ম তল্কালীন পূর্ব জার্মানিতে। ক্যালিফোর্নিয়ার সান ব্রুনাে, যুক্তরাষ্ট্রে ইউটিউবের সদর দপ্তর অবস্থিত।

৬০। বাংলাদেশের বাণিজ্য ভারসাম্য কীভাবে রক্ষা হয়?
(ক) IDA credit-এর মাধ্যমে।
(খ) IMF-এর bailout package-এর মাধ্যমে
(গ) প্রবাসীদের পাঠানাে remittance-এর মাধ্যমে
(ঘ) বিশ্ব ব্যাংকের budgetary support-এর মাধ্যমে
উত্তর : গ

ব্যাখ্যা: বাণিজ্য ভারসাম্য (ইংরেজি: Balance of Trade) হচ্ছে কোন দেশের অর্থনীতির একটি নির্দিষ্ট সময়ের মােট রপ্তানি ও মােট আমদানির আর্থিক মূল্যের পার্থক্য। একে নেট রপ্তানীও বলা হয়ে থাকে। বাংলাদেশের বাণিজ্য ভারসাম্য রক্ষা হয় মূলত রপ্তানিকৃত পােশাক হতে অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রা ও প্রবাসীদের পাঠানাে রেমিট্যান্সের মাধ্যমে।

৬১। অবিভক্ত বাংলার সর্বপ্রথম রাজা কাকে বলা হয়?
(ক) অশােক
(খ) শশাঙ্ক
(গ) মেগদা
(ঘ) ধর্মপাল
উত্তর : খ

ব্যাখ্যা: শশাঙ্কই প্রথম রাজব্যক্তিত্ব যিনি সর্বভারতীয় শক্তির বিরুদ্ধে বাংলার স্বাধীন সার্বভৌম সত্তার প্রকাশ এবং বাংলার স্বাধীন অস্তিত্ব অক্ষুন্ন রাখার কৃতিত্ব দেখিয়েছিলেন। এজন্য শশাঙ্ককে বাংলার প্রথম গুরুত্বপূর্ণ নৃপতি” হিসেবে আখ্যা দেন আধুনিক ঐতিহাসিকেরা। উল্লেখ্য, সম্রাট অশােক কখনাে অবিভক্ত বাংলার শাসক ছিলেন না।

৬২। বঙ্গভঙ্গ রদ কে ঘােষণা করেন?
(ক) লর্ড কার্জন
(খ) রাজা পঞ্চম জর্জ
(গ) লর্ড মাউন্ট ব্যাটেন
(ঘ) লর্ড ওয়াভেল
উত্তর : খ

ব্যাখ্যা: লর্ড কার্জন ১৯০৩ সালে বাংলা প্রদেশকে ভাগ করার পরিকল্পনা করেন এবং ১৯০৫ সালে তা কার্যকর হয়। রাজা পঞ্চম জর্জ ভারত সফরে এসে ১৯১১ সালে দিল্লির দরবারে বঙ্গভঙ্গ রদের ঘােষণা দেন।

৬৩। ঢাকা শহরের গােড়াপত্তন হয়
(ক) ব্রিটিশ আমলে
(খ) সুলতানি আমলে
(গ) মুঘল আমলে
(ঘ) স্বাধীন নবাবী আমলে
উত্তর : গ

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার গুরুত্ব মুগল-পূর্ব যুগে থাকলেও শহরটি ইতিহাসে প্রসিদ্ধি লাভ করে মুঘল যুগে। ১৬০৮ সালে ঢাকায় প্রথম মুঘলদের পা পড়ে। ১৬১০ সালে ঢাকার নামকরণ করা হয় জাহাঙ্গীরনগর।

৬৪। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় কে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন?
(ক) নওয়াব আবদুল লতিফ
(খ) স্যার সৈয়দ আহমেদ
(গ) নওয়াব স্যার সলিমুল্লাহ
(ঘ) খাজা নাজিমুদ্দিন
উত্তর : গ

ব্যাখ্যা: ১৯১২ সালের ২ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার প্রতিশ্রুতি দেন তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের ভাইসরয় লর্ড হার্ডিঞ্জ। এর মাত্র তিন দিন পূর্বে ভাইসরয় এর সাথে সাক্ষাৎ করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার আবেদন জানিয়ে ছিলেন ঢাকার নবাব স্যার সলিমুল্লাহ, ধনবাড়ীর নবাব সৈয়দ নওয়াব আলী চৌধুরী, শেরে বাংলা এ. কে. ফজলুল হক এবং অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

৬৫। ভাষা আন্দোলনের সময় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী কে ছিলেন?
(ক) খাজা নাজিম উদ্দীন
(খ) নুরুল আমিন
(গ) লিয়াকত আলী খান
(ঘ) মােহাম্মদ আলী জিন্নাহ
উত্তর : ক

ব্যাখ্যা: ভাষা আন্দোলনের সময় পাকিস্তানের গভর্নর জেনারেল মালিক গােলাম মােহাম্মদ, পূর্ব বাংলার মূখ্যমন্ত্রী নুরুল আমিন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী খাজা নাজিমউদ্দীন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. সৈয়দ মােয়াজ্জম হােসেইন ।

৬৬। কোন বিদেশি রাষ্ট্র বাংলাকে অন্যতম রাষ্ট্রভাষার মর্যাদা দিয়েছে?
(ক) রুয়ান্ডা
(খ) সিয়েরালিয়ন
(গ) সুদান
(ঘ) লাইবেরিয়া
উত্তর : খ

ব্যাখ্যা: সিয়েরালিয়ন ২০০২ সালে বাংলা ভাষাকে তাদের দ্বিতীয় রাষ্ট্রভাষার মর্যাদা দিয়েছে।

৬৭। জাতিসংঘ নামকরণ করেন
(ক) রুজভেল্ট
(খ) স্টালিন।
(গ) চার্চিল।
(ঘ) দ্যা গল
উত্তর : ক

ব্যাখ্যা: ৫১টি দেশ নিয়ে ১৯৪৫ সালে বিশ্বের সর্বোচ্চ আন্তর্জাতিক সংস্থা জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠিত হয়। এ সংস্থা গঠনের প্রস্তাব ও নামকরণ করেন তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্কলিন ডি রুজভেল্ট (১ জানুয়ারি ১৯৪২ সালে)। ২০২০ সালে প্রতিষ্ঠানটি ৭৫ বছর (প্লাটিনাম জয়ন্তী) পূর্ণ করে।

৬৮। কোন মুসলিম দেশ সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্য?
(ক) সৌদি আরব
(খ) মালয়েশিয়া
(গ) পাকিস্তান
(ঘ) তুরস্ক
উত্তর : ঘ

ব্যাখ্যা: মুসলিম দেশ হয়েও NATO সদস্য তুরস্ক ও আলবেনিয়া।

৬৯। ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল কোন দেশ ভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংস্থা?
(ক) সুইডেন
(খ) মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
(গ) যুক্তরাজ্য
(ঘ) জার্মানি
উত্তর : ঘ

ব্যাখ্যা: জার্মানির বার্লিনভিত্তিক দুর্নীতি বিরােধী একটি বেসরকারি আন্তর্জাতিক সংস্থা। ১৯৯৩ খ্রিস্টাব্দে সংস্থাটি প্রতিষ্ঠা করেন পিটার এজেন।

৭০। সামরিক ভাষায় ‘WMD’ অর্থ কী?
(7) Weapons of Mass Destruction
(31) Worldwide Mass Destruction
(1) Weapons of Missile Defence
(T) Weapons for Massive Destruction
উত্তর:ক

ব্যাখ্যা: বিভিন্ন ক্ষেত্রে WMD এর অর্থ বিভিন্ন রকম। তবে সামরিক ক্ষেত্রে WMD এর অর্থ Weapons of Mass Destruction- যা মানুষ ও প্রকৃতির ক্ষতি করতে সক্ষম এমন অস্ত্র । রাসায়নিক, জৈবিক, পারমাণবিক এবং রেডিওলজিকাল
অস্ত্রগুলােWMD এর উদাহরণ।

৭১। ২০২০ সালে প্রকাশিত ‘আইনের শাসন সূচক শীর্ষস্থান অর্জনকারী দেশের নাম কী?
(ক) ডেনমার্ক
(খ) নরওয়ে
(গ) জার্মানি
(ঘ) সিঙ্গাপুর
উত্তর:ক

৭২। জাতিসংঘের কোন সংস্থা বার্ষিক বিশ্ব বিনিয়ােগ প্রতিবেদন প্রকাশ করে?
(ক) WTO
(খ) MIGA.
(গ) World Bank
(ঘ) UNCTAD
উত্তর:ঘ

ব্যাখ্যা: UNCTAD এর পূর্ণরূপ- United Nations Conference On Trade and Development (জাতিসংঘ উন্নয়ন ও বাণিজ্য কর্মসূচি)। সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় এর সদর দপ্তর অবস্থিত। UNCTAD প্রধানের পদবি- Secretary General ।বর্তমান Secretary General- Mukhisa Kituyi (কেনিয়া)।

৭৩। আন্তর্জাতিক আদালতে মিয়ানমার কর্তৃক রােহিঙ্গা গণহত্যার অভিযােগে মামলা করে কোন দেশ?
(ক) নাইজেরিয়া।
(খ) গাম্বিয়া
(গ) বাংলাদেশ।
(ঘ) আলজেরিয়া
উত্তর:খ

ব্যাখ্যা: মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে কয়েকটি সেনা তল্লাশি চৌকিতে কথিত সন্ত্রাসী হামলার জবাবে দেশটির সেনাবাহিনী (তাতামাদাও) ২৫ আগস্ট ২০১৭ রােহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত নিধন অভিযান শুরু করে। এ ঘটনায় ১১ নভেম্বর ২০১৯ নেদারল্যান্ডসের দ্য হেগে অবস্থিত জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে (ICJ) মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ওআইসি’র সমর্থনে রােহিঙ্গা গণহত্যার মামলা করে আফ্রিকার ছােট দেশ গাম্বিয়া (রাজধানী বাঙুল)। ১০-১২ ডিসেম্বর ২০১৯ অনুষ্ঠিত শুনানিতে গাম্বিয়ার পক্ষে নেতৃত্ব দেন দেশটির আইনমন্ত্রী ও অ্যাটর্নি জেনারেল আবুবকর মারি তাস্বাদু।

৭৪। নর্থ আটলান্টিক ট্রিটি অর্গানাইজেশন কোন বছর প্রতিষ্ঠিত হয়?
(ক) ১৯৪৫ সালে
(খ) ১৯৪৯ সালে
(গ) ১৯৪৮ সালে
(ঘ) ১৯৫১ সালে
উত্তর:খ

ব্যাখ্যা: NATO-এর পূর্ণরূপNorth Atlantic Treaty Organization; এটি পৃথিবীর সর্ববৃহৎ সামরিক জোট। প্রতিষ্ঠা-৪ এপ্রিল, ১৯৪৯। প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য ১২টি, বর্তমান সদস্য ৩০টি, সর্বশেষ সদস্য উত্তর মেসিডােনিয়া (২৭ মার্চ, ২০২০)। 

৭৫। এশিয়াকে আফ্রিকা মহাদেশ থেকে পৃথক করেছে কোন প্রণালীঃ
(ক) জিব্রাল্টার প্রণালী
(খ) বসফরাস প্রণালী
(গ) বাবেল মান্দেব প্রণালী
(ঘ) বেরিং প্রণালী
উত্তর : গ

৭৬। ব্রিটিশ ভারতের রাজধানী কলকাতা থেকে দিল্লীতে স্থানান্তরিত হয় কত সালে?
(ক) ১৯১২ সালে
(খ) ১৯১৩ সালে
(গ) ১৯১৪ সালে
(ঘ) ১৯১৫ সালে
উত্তর : ক

ব্যাখ্যা: ১৯১১ সালে বঙ্গভঙ্গ রদ হয়। বঙ্গভঙ্গ রদের সময় ব্রিটেনের রাজা ছিলেন পঞ্চম জর্জ এবং ভাইসরয় ছিলেন লর্ড হার্ডিঞ্জ। তিনি ১৯১২ সালে রাজধানী দিল্লীতে হস্তান্তর করেন।

৭৭। আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল কোন সালে গঠিত হয়?
(ক) ১৯৪৪ সালে
(খ) ১৯৪৫ সালে
(গ) ১৯৪৮ সালে
(ঘ) ১৯৪৯ সালে
উত্তর : খ

ব্যাখ্যা: ১-২২ জুলাই ১৯৪৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ হ্যাম্পশায়ারের ব্রেটন উডসের মাউন্ট ওয়াশিংটন হােটেলে অনুষ্ঠিত ৪৫টি দেশের প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে গৃহীত চুক্তির মাধ্যমেপ্রতিষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও IMF আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিষ্ঠিত হয় ২৭ ডিসেম্বর ১৯৪৫ সালে। তবে কার্যক্রম শুরু হয় ১ মার্চ ১৯৪৭ সালে; IMF এর সদর দপ্তরওয়াশিংটন ডি.সি-তে অবস্থিত।

৭৮। জাতিসংঘের কোন সংস্থাটি করােনা ভাইরাসকে ‘pandemic’ ঘােষণা করেছে?
(7) ECOSOC
(খ) FAO
(গ) WHO
(T) HRC
উত্তর : গ

ব্যাখ্যা :

৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯ চীনের হুবেই প্রদেশের উহান নগরে অজানা কারণে নিউমােনিয়ায় আক্রান্ত হওয়ার বিষয়ে নিশ্চিত হয় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO), যা পরবর্তী সময় নতুন করােনাভাইরাস হিসেবে শনাক্ত হয়। প্রথম নভেল করােনাভাইরাস শনাক্ত করেন চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডা. লি ওয়েন লিয়া।
৭ জানুয়ারি, ২০২০ WHO চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে প্রথম শনাক্ত হওয়া করােনাভাইরাসের সপ্তম প্রজাতির নামকরণ করে নভেল করােনাভাইরাস। আর এর মাধ্যমে সৃষ্ট রােগের নামকরণ করা হয় 2019 Novel Corona Virus (2019-nCoV)।
১১ জানুয়ারি, ২০২০  চীনে নভেল করােনাভাইরাসের সংক্রমণে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।
৩০ জানুয়ারি, ২০২০  বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করােনা ভাইরাসের কারণে বৈশ্বিক জরুরি অবস্থা ঘােষণা করে।
১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ WHO নভেল করােনাভাইরাসের সংক্রমণে ফু’র মতাে উপসর্গ নিয়ে যে রােগ হয় তার নামকরণ করে COVID-19।
৮ মার্চ, ২০২০ বাংলাদেশে প্রথম সংক্রমণ শনাক্তের কথা জানানাে হয়। শনাক্ত তিনজনের দু’জন ছিলেন ইতালি ফেরত।
১১ মার্চ, ২০২০ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) করােনাভাইরাসের ফলে সৃষ্ট রােগ COVID-19 কে বৈশ্বিক মহামারি ঘােষণা করে।
১৬ মার্চ, ২০২০ প্রথমবারের মতাে যুক্তরাষ্ট্রের সিয়াটলে জেনিফার হলারের ওপর করােনাভাইরাসের ভ্যাকসিন পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়ােগ করা হয়।

৭৯। যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ডেমােক্রেটিক দলের মনােনয়নের জন্য ন্যূনতম কতজন ডেলিগেটের সমর্থন প্রয়ােজন?
(ক) ২৫০০
(খ) ১৯৯১
(গ) ১৯৫০
(ঘ) ১৮৯০
উত্তর : খ

ব্যাখ্যা: ডেলিগেট বলতে স্থানীয় নেতৃবৃন্দ, যারা দলের জাতীয় সম্মেলনে তাঁদের অঙ্গরাজ্যের প্রতিনিধিত্ব করেন তাদের বুঝানাে হয়। যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ডেমােক্রেটিক দলের মনােনয়নের জন্য ন্যূনতম ১৯৯১ জন ডেলিগেটের সমর্থনের প্রয়ােজন হয়।

আরো পড়ুন

২৬তম বিসিএস প্রিলিমিনারী পরীক্ষার প্রশ্ন ব্যাখ্যাসহ সমাধান

Bcs Preparation

Current Affairs December 2020 Pdf কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স ডিসেম্বর ২০২০

Bcs Preparation

২২তম বিসিএস প্রিলিমিনারী পরীক্ষার প্রশ্ন ব্যাখ্যাসহ সমাধান

Bcs Preparation