জীবনযাপন

হিজাবিদের জন্য স্পেশাল টিপস ও ট্রিকস

হিজাবিদের জন্য স্পেশাল টিপস ও ট্রিকস : আজকাল অনেক মেয়েরাই মডেস্ট গেটআপ প্রিফার করে। এখন মেয়েদের বিচরণ সর্বত্রই, সংসার সামলিয়ে নিজের ক্যারিয়ার গুছিয়ে নিচ্ছে, শিক্ষা-গবেষণা কোনো দিক দিয়েই পিছিয়ে নেই। বাইরে বের হলে পর্দা মেনটেইনের জন্য হিজাব বা স্কার্ফ দিয়ে মাথা ঢেকে নিতে হয়, আর অনেকে এই গেটআপেই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। আসলে এটা একান্তই যার যার পার্সোনাল চয়েজ। হিজাব পরিধানে পর্দা মেনটেইনের পাশাপাশি ওভারঅল লুকে চলে আসে মার্জিতভাব। হিজাবিদের জন্য আজ থাকছে দারুণ কিছু হ্যাকস ও টিপস, যেগুলো আপনার লাইফকে করবে আরেকটু সহজ। তাহলে দেখে নিন সেগুলো কী কী!

হিজাবিদের জন্য স্পেশাল টিপস ও ট্রিকস

ব্যস্ত জীবনে আমাদের চাই চটজলদি সল্যুশন। রেগুলার লাইফে কত রকম সমস্যা আমরা ফেইস করি। আমরা যারা প্রতিদিন হিজাব পরে বের হই, তাদের প্রয়োজন একটু এক্সট্রা সেলফ কেয়ার ও অ্যাটেনশন। হিজাবিদের জন্য আজকে শেয়ার করবো দারুণ কার্যকর কিছু টিপস, যেগুলো খুব সহজেই আপনি রেগুলার লাইফে ইন্ট্রিগেট করতে পারবেন।

স্টাইলিং টিপস ও ট্রিকস

ভলিউম করে হিজাব পরা গরমকালের জন্য মোটেই স্যুইটেবল না। এতে মাথা ভারি লাগে, স্ক্যাল্পে ঘাম বেশি হয় আর আপনি নিজেও কমফোর্ট ফিল করবেন না। আঁটসাঁট হিজাব স্টাইল এভোয়েড করে ক্যাজুয়াল ফ্লোয়ি হিজাব স্টাইলে নিজেকে সাজিয়ে নিতে পারেন। খুব বেশি লেয়ার না করে আর অনেক পিন না ইউজ করে জাস্ট সিম্পলি মাথায় পেঁচিয়ে নিতে পারেন পছন্দের স্কার্ফ বা ওড়নাটি।

আপনি যদি এক কালারের ড্রেস পরেন, সেক্ষেত্রে অন্য রঙের হিজাবে ভালো লাগবে আর প্রিন্টেড বা ফ্লোরাল মোটিভের স্কার্ফ সিলেক্ট করলে বেশ ট্রেন্ডি লুক চলে আসবে। আর আপনি যদি কালারফুল ও প্রিন্ট-এর ড্রেস পরেন, তাহলে হালকা কালারের এক রঙা হিজাব ক্যারি করতে পারেন। কালার কন্ট্রাস্ট করে পরলে স্টাইলিশ লাগবে। গরমে পরার জন্য সাদা, পীচ কালার, বেবি পিংক, ব্রাউন, স্কাই ব্লু, ল্যাভেন্ডার অথবা পার্পেলের লাইট শেড- এগুলো বেশ ভালো অপশন।

হিজাবের ফেব্রিক সিলেকশন

সুতির হিজাব সিলেক্ট করুন সামার সিজনের জন্য। রেগুলার আউটফিট হিসেবে আরামদায়ক হয়, এমন ফেব্রিক বেছে নেওয়াটাই ভালো। সুতি কাপড় সহজেই ঘাম শোষণ করে ফেলে আর স্ক্যাল্পে বাতাস প্রবাহের সুযোগ পায়। শীতকালে আপনার জন্য আরও অপশন আছে, কিন্তু গরমের মধ্যে কটোন বেসড ফেব্রিকই পারফেক্ট।

মাস্কের সাথে হিজাব

নিউ নরমাল লাইফে বাইরে মাস্ক পরা ম্যান্ডেটরি। হিজাব পরিধানে যেহেতু কানও ঢাকা থাকে, তাই অনেকেই প্রবলেম ফেইস করেন মাস্ক পরতে। অনেকে আগে মাস্ক পরে তারপর স্কার্ফ দিয়ে হিজাব পরে নেন। হিজাব পরার পর মাস্ক পরে পিন দিয়ে আটকিয়ে নিতে পারেন অথবা স্কার্ফের ভেতর দিয়ে ছোট সেফটি পিনের সাহায্যে মাস্কের ফিতাটি পিন আপ করে নিতে পারেন। আর মাস্ক পরার আগে ঠোঁটে লিপ জেল বা স্টিকি কোনো লিপগ্লস অ্যাপ্লাই করবেন না, এতে আপনারই অস্বস্তি হবে।

চটজলদি চুলের যত্ন নিতে টিপস

হিজাবিদের চুলের যত্ন সহজেই কীভাবে করা যায়, সেটার টিপস চাই! অনেকেই জানতে চান এটা। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে মাথার ত্বক ও চুল পরিষ্কার রাখা। স্ক্যাল্প পরিষ্কার থাকলে হেয়ার প্রবলেম অনেকটাই সল্ভড! হিজাবিদের মাথার ত্বক একটু বেশিই ঘামে, সেই সাথে খুশকি হওয়ার প্রবণতা বেশি থাকে।

১) প্রথম টিপস হচ্ছে বেস্ট হিজাব শ্যাম্পু সিলেক্ট করুন। সঠিকভাবে মাথার ত্বক ও চুল পরিস্কার রাখুন। এখন বাজারে হিজাবিদের হেয়ার প্রবলেমকে টার্গেট করে শ্যাম্পু পাওয়া যায়। স্ক্যাল্পকে সুরক্ষা দেবে, লং টাইম ধরে খুশকিমুক্ত রাখবে, সেই সাথে চুলকে করবে কোমল, এমন শ্যাম্পু বেছে নিন। এক্ষেত্রে আমার প্রথম পছন্দ ক্লিয়ার হিজাব পিওর শ্যাম্পু। নিউট্রিয়াম টেনসহ এতে আছে প্রয়োজনীয় ভিটামিন ও মিনারেলস যা আপনার স্ক্যাল্পকে পুষ্টি যোগাবে, দীর্ঘ সময় পর্যন্ত ড্যানড্রাফ ফ্রি রাখবে। আর এটা রিফ্রেশিং ফিল দেয় প্রতিবার শাওয়ারে, যেটা আমার খুবই পছন্দ। চুল ও স্ক্যাল্প পরিষ্কার রাখতে এটাই বেস্ট চয়েজ!

২) সেকেন্ডলি আপনি সপ্তাহে ১ দিন হোমমেড হেয়ার প্যাক ইউজ করতে পারেন, চুলের এক্সট্রা কেয়ারের জন্য! টক দই, সামান্য লেবুর রস আর ডিম দিয়ে প্যাক বানিয়ে চুলে লাগিয়ে রাখুন ৩০ মিনিট। তারপর ভালোভাবে শ্যাম্পু করে নিন। চুল হবে সফট ও ম্যানেজেবল।

তাহলে হিজাবিদের জন্য কিছু টিপস ও ট্রিকস জানা হয়ে গেলো। আর সেই সাথে চুলের যত্নে কার্যকরী একটি শ্যাম্পুর সাজেশনও পেয়ে গেলেন, তাই না? ক্লিয়ার হিজাব পিওর শ্যাম্পু আমি রেগুলার ইউজ করছি কেননা কাজের তাগিদে আমাকে রোজই বের হতে হয়। আর বাসায় ফিরে চুল ও মাথার ত্বক পরিষ্কার করা জরুরি। এই শ্যাম্পু ব্যবহারে আমার খুশকির সমস্যা অনেকটাই কন্ট্রোলে এসেছে, চুল পড়াও আগের থেকে কমেছে। তাই ভাবলাম আপনাদের সাথেও শেয়ার করে ফেলি, যাতে আমার মত যারা রেগুলার হিজাব পরে বের হচ্ছেন, তারা তাদের হেয়ার কেয়ারে সঠিক শ্যাম্পুটি সিলেক্ট করতে পারেন।

স্কিন ও হেয়ার কেয়ারের জন্য অথেক্টিক প্রোডাক্ট আপনারা চাইলে সাজগোজের দুটি ফিজিক্যাল শপ ভিজিট করতে পারেন, যার একটি যমুনা ফিউচার পার্ক ও অপরটি সীমান্ত স্কয়ারে অবস্থিত। আর অনলাইনে কিনতে চাইলে শপ.সাজগোজ.কম থেকে কিনতে পারেন। সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন, সুন্দর থাকবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button