প্রশ্ন ও উত্তর

সুফিয়া কামাল জাতীয় গণগ্রন্থাগারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয় কবে?

সুফিয়া কামাল জাতীয় গণগ্রন্থাগারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয় কবে?
ভুল  ১৯৫৩ সালে
সঠিক  ১৯৫৪ সালে

গ্রিক শব্দ Libre থেকে Library’র উৎপত্তি, যার অর্থ ‘গ্রন্থাগার’। গ্রন্থাগার হচ্ছে বইপুস্তক, পত্রপত্রিকা-সাময়িকীসহ অডিওভিজুয়াল সাশ্রীর ভান্ডার, সংগ্রহশালা এবং সংরক্ষণাগার। সুফিয়া কামাল জাতীয় গণগ্রন্থাগার বা কেন্দ্রীয় গণগ্রন্থাগার বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ পাঠাগার।

৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৫৪ কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরির ভিত্তি প্রস্তুর স্থাপিত হয়। ২২ মার্চ ১৯৫৮ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সংস্কৃতি বিভাগের অধীনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরির যাত্রা শুরু হয়। ১৯৭৭ সালে এটি রাজধানীর প্রাণকেন্দ্র শাহবাগে স্থানান্তরিত হয় এবং ৬ জানুয়ারি ১৯৭৮ কার্যক্রম শুরু হয়।

এই বিভাগ থেকে আরো পড়ুন

এরপর কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরিসহ তৎকালীন বিভাগীয় সরকারি গণগ্রন্থাগার এবং জেলা পর্যায়ে বাংলাদেশ পরিষদকে জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগার নামকরণ করে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীনে ১৯৮৩ সালে গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তর প্রতিষ্ঠিত হয়।

কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরিটি পরবর্তীতে বরেণ্য কবি সুফিয়া কামালের নামানুসারে সুফিয়া কামাল জাতীয় গণগ্রন্থাগার নামকণ করা হয়। গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তর সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন একটি অধিদপ্তর, যার অধীনে সুফিয়া কামাল জাতীয় গণগ্রন্থাগারসহ ৭১টি সরকারি গণগ্রন্থাগার পরিচালিত হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button