ডিসেম্বর মাসের জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দিবস ও প্রতিপাদ্য বিষয়

সশস্ত্র বাহিনীতে অফিসার ক্যাডেট নিয়ােগ নির্দেশনা

বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, বিমান বাহিনী ও নৌবাহিনী নিয়ে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী গঠিত। বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর অফিসার ক্যাডেট (লং কোর্স) বহু তরুণের কাছে এক স্বপ্নের নাম। দ্রুত ক্যারিয়ার প্রতিষ্ঠিত হওয়ার অফুরন্ত সুযােগ রয়েছে বলেই সশস্ত্র বাহিনীর অফিসার ক্যাডেট ক্যারিয়ার হিসেবে অনেক আকর্ষণীয়। বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর অফিসার ক্যাডেট নিয়ােগের আদ্যোপান্ত নিয়ে আমাদের এবারের আয়ােজন।

নিয়ােগ পদ্ধতি

সশস্ত্র বাহিনীতে বিভিন্ন পদের জন্য ভিন্ন ভিন্ন নিয়ােগ পদ্ধতি রয়েছে। সাধারণত ৩ শ্রেণির পদবি রয়েছে সশস্ত্র বাহিনীতে (বেসামরিক পদ বাদে) সৈনিক, নন কমিশন্ড অফিসার ও জুনিয়র কমিশন্ড। অফিসার এবং কমিশন্ড অফিসার (প্রথম শ্রেণির গেজেটেড কর্মকর্তা)। কমিশন্ড অফিসার দুইভাবে নিয়ােগ দেওয়া হয়।

আরো পড়ুন : Recent General Knowledge Bangladesh and International Affairs

এইচ. এস. সি সম্পন্নের পর যে কোর্সের মাধ্যমে আপনি অফিসার হিসেবে কমিশন পাবেন, সেটি হচ্ছে Long Course আর মাতকের পর যে কোর্সটি করতে হবে তা হলাে Special/Short Course। নাম শুনেই ধারণা করা যায়, প্রথম কোর্সটি দীর্ঘমেয়াদি এবং দ্বিতীয় কোর্সটি স্বল্পমেয়াদি। আবেদনের ক্ষেত্রে কিছু (যেমন : বয়স, বৈবাহিক অবস্থা, শিক্ষাগত যােগ্যতা প্রভৃতি) ভিন্নতা ছাড়া দুই কোর্সে নিয়ােগ প্রক্রিয়া প্রায় একই।

আবেদন পদ্ধতি

অনলাইনে আবেদন করতে হয়। সাধারণত বছরে দুইবার সার্কুলার দেওয়া হয়। তাই একবার না পারলেও হতাশ হওয়ার কিছু নেই। নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে গিয়ে সতর্কতার সাথে আবেদন কতে হবে। আবেদন ফি ও পরবর্তী প্রক্রিয়া খুবই সহজ। যার বিস্তারিত নির্দেশনা নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে গিয়ে পাওয়া যাবে।

পরীক্ষার ধাপসমূহ

  • প্রাথমিক স্বাস্থ্য ও মৌখিক পরীক্ষা
  • লিখিত পরীক্ষা
  • ISSB পরীক্ষা
  • চূড়ান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষা
  • চূড়ান্ত নির্বাচন ও যােগদানের নির্দেশিকা প্রদান।

অনলাইন আবেদন ওয়েবসাইট

ISSB পরীক্ষা

১৯৭৪ সালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ASB বা Army Selection Board প্রতিষ্ঠা করে। অন্যদিকে, বাংলাদেশ নৌবাহিনী ও বিমান [ বাহিনীও বিভিন্ন বাের্ডের মাধ্যমে অফিসার নিয়ােগ প্রক্রিয়া সম্পাদন করতে থাকে। অতঃপর ১৯৭৬ সালের জুলাই মাসে। সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর বাের্ডগুলােকে একত্রিত করে প্রতিষ্ঠা। করা হয় ISSB বা Inter Services Selection Board। তখন। থেকেই সুনাম ও সততার সাথে প্রতিষ্ঠানটি সশস্ত্র বাহিনীর কমিশন্ড
অফিসার নিয়ােগ প্রদান করছে।

ISSB পরীক্ষায় যা দেখা হয়

সশস্ত্র বাহিনীতে নিয়ােগের বেলায় ISSB পরীক্ষা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। চারদিনের পরীক্ষায় বিভিন্ন ধাপে টিকলেই মেলে গ্রিন কার্ড। এখানে প্রার্থীর মনস্তাত্ত্বিক, বুদ্ধিমত্তা, শারীরিক দক্ষতা, ব্যক্তিত্ব, উপস্থিত বুদ্ধি, নেতৃত্বের দক্ষতা ইত্যাদি দেখা হয়। ISSB পরীক্ষা। ধ্রুব নয়। সময়ের সাথে সাথে পরীক্ষা পদ্ধতির পরিবর্তন আনা হয়। তবে সাধারণত যে বিষয়গুলাের ওপর পরীক্ষা হয় তা হলাে :

প্রথম দিন

সকাল

  • সঠিক সময়ে উপস্থিতি
  • স্বাগত পরিচিতি
  • IQ টেস্ট
  • Picture Perception and Discussion Test (PPDT)
  • PPDT’র ফলাফল (এতে অনুত্তীর্ণ হলে ISSB থেকে বাদ পরে যায়)।

বিকাল

  • পারসােনালিটি টেস্ট

দ্বিতীয় দিন

এদিন ৬টি পরীক্ষায় অংশ নিতে হয়।

  • Group Discussion (বাংলা ও ইংরেজি)
  • Progressive Group Task
  • Half Group Task
  • Extempore Speech
  • Physical Ability Test
  • Interview

তৃতীয় দিন

  • Planning Exercise
  • Command Task
  • Mutual Assessment

চতুর্থ দিন

  • Assessment Conference
  • Final Result and Final Briefing
  • ISSB পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর চূড়ান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষা।
  • অফিসিয়াল জয়েনিং লেটার প্রদান।

যােগদানের পর সুবিধাসমূহ

যােগদানের পর মূল বেতনের বাইরেও রয়েছে

  • উচ্চ র‌্যাংকে পদন্নোতি
  • বিদেশে প্রশিক্ষণ
  • উচ্চ শিক্ষা
  • বাসস্থান ও রেশন
  • চিকিৎসা
  • জাতিসংঘ মিশন
  • গাড়ি ঋণ ও ডি.ও.এইচ.এস প্লট
  • সন্তানদের সেনাবাহিনী পরিচালিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়ন সুবিধা ইত্যাদি।
Scroll to top