সামাজিক বিজ্ঞান

সংস্কৃতি কী? সংস্কৃতির উপাদান

সংস্কৃতি কী?

সাধারণত সংস্কৃতি বলতে আমরা বুঝি মার্জিত রুচি বা অভ্যাসগত উৎকর্ষ। কিন্তু আসলে সংস্কৃতি বলতে আরাে কিছু বােঝায়। মানুষের জীবনের সব দিকগুলােই সংস্কৃতির অন্তর্ভুক্ত। সংস্কৃতি হল মানুষের আচরণের সমষ্টি। সমাজের সদস্য হিসেবে মানুষ সমাজ থেকে যা কিছু অর্জন করে তাই সংস্কৃতি।

মানুষের জ্ঞান, বিশ্বাস, আচার-ব্যবহার, ভাষা, খাওয়া-দাওয়া, নৈতিকতা, মূল্যবােধ সব কিছুই সংস্কৃতির অন্তর্ভুক্ত।

ই.বি টেইলর (Tylor) বলেন যে, “সংস্কৃতি হচ্ছে জ্ঞান, বিশ্বাস, শিল্পকলা, নীতি, নিয়ম, সংস্কার ও অন্যান্য দক্ষতা যা মানুষ সমাজের সদস্য হিসেবে অর্জন করে থাকে।

নর্থ (North) -এর মতে, “কোনাে সমাজের সদস্যরা বংশপরম্পরায় যেসব আচার, প্রথা ও অনুষ্ঠান উত্তরাধিকার সূত্রে লাভ করে তাই সংস্কৃতি।”

সংস্কৃতির উপাদান

সংস্কৃতির উপাদানকে ২টি ভাগে ভাগ করা যেতে পারে যথা-

  • বস্তুগত উপাদান ও
  • অবস্তুগত উপাদান।

সংস্কৃতির যে উপাদানটি বাস্তবরূপ ধারণ করে থাকে তাকে সংস্কৃতির বস্তুগত উপাদান বলা হয়। যেমন- ঘরবাড়ি, কলকারখানা, টেবিল, যন্ত্রপাতি, কাঁচামাল, খাদ্যদ্রব্য ইত্যাদি। অন্যদিকে সংস্কৃতির যে উপাদানটি উপলদ্ধি বা অনুধাবন করা যায় তাকে অবস্তুগত উপাদান বলে। যথা- জ্ঞান, বিশ্বাস, নাটক, সাহিত্য, নৃত্যকলা, ভাষা, আচার-অনুষ্ঠান ইত্যাদি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button