সামাজিক বিজ্ঞান

মানবসমাজে ভৌগােলিক উপাদান এর প্রভাব

সমাজবিজ্ঞানী পি, সরােকিন (P. Sorokin) এর মতে, “ভৌগােলিক উপাদান বা ভৌগােলিক পরিবেশ বলতে সেই সব মহাজাগতিক অবস্থা এবং ব্যাপারকে নির্দেশ করে যা মানুষের সৃষ্টি নয় এবং যা নিজের নিয়মেই পরিবর্তিত হয়।” তিনি ভৌগােলিক উপাদান বলতে জলবায়ু, তাপমাত্রা, মাটি, বায়ুমণ্ডল, নদনদী, পাহাড়-পর্বত, গ্রহ নক্ষত্র, ঋতু পরিবর্তন, বৃষ্টিপাত প্রভৃতিকে বুঝিয়েছেন।

ভৌগােলিক উপাদানের প্রভাব :

ভৌগােলিক উপাদান কিভাবে মানবসমাজে প্রভাব বিস্তার করে তা নিম্নে বর্ণনা করা হল :

(১) জনসংখ্যা বণ্টনের ওপর প্রভাব : মানবসভ্যতা বিকাশের উপযুক্ত পরিবেশ হল নাতিশীতােষ্ণ অঞ্চল। যেখানে বসবাস করার উপযােগী আবহাওয়া বিরাজ করে এবং যেখানে খাদ্যের যােগান পর্যাপ্ত সেখানেই জনসংখ্যার ঘনত্ব বৃদ্ধি পায়।

(২) পেশার ওপর প্রভাব : মানুষের পেশা ভৌগােলিক উপাদান দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। সিলেট পাহাড়ী এলাকা এবং প্রচুর বৃষ্টি হয় বলেই সেখানে চা উৎপন্ন হয়। ফলে সিলেটের চা বাগানে শ্রমিকদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হয়।

(৩) কুটির শিল্পের ওপর প্রভাব : শিল্পকারখানাও ভৌগােলিক উপাদান দ্বারা প্রভাবিত। রাজশাহীতে রেশম শিল্প এবং সিলেটে বেত ও চা শিল্প গড়ে ওঠার পেছনে ঐ অঞ্চলের ভৌগােলিক পরিবেশ দায়ী।

(৪) মােগাযােগ ব্যবস্থার ওপর প্রভাব : কোনাে দেশের যােগাযােগ ব্যবস্থা কীরূপ হবে তা অনেকাংশে নির্ভর করে সে দেশের ভৌগােলিক পরিবেশের ওপর। বাংলাদেশ নদী-নালার দেশ বলেই এদেশের প্রধান যােগাযােগের মাধ্যম হল নৌকা। আবার মরুভূমি অঞ্চলের যােগাযােগের মাধ্যম হল উট।

(৫) পােশাক-পরিচ্ছদ : মানুষের পােশাক-পরিচ্ছদের ওপর ভৌগােলিক পরিবেশ প্রভাব বিস্তার করে। গ্রীষ্মমণ্ডলের লােকেরা পাতলা, ঢিলেঢালা এবং শীত অঞ্চলের লােকেরা গরম বা পশমি কাপড় পরিধান করে।

(৬) গৃহ নির্মাণের ওপর প্রভাব : গৃহ নির্মাণের রীতিতে ভৌগােলিক উপাদান বেশ কার্যকরি ভূমিকা পালন করে । জাপানে প্রায়ই ভূমিকম্প হয় বলে সেদেশের লােকেরা কাঠ ও কাগজের ঘর নির্মাণ করে। বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলে গােলপাতা ও সুন্দরী কাঠ বেশি জন্মে বলে ঐ অঞ্চলের লােকেরা গৃহ নির্মাণে ঐসব কাঠ ব্যবহার করে।

(৭) খাদ্যের ওপর প্রভাব : মানুষের খাদ্য উপাদান ও খাদ্যাভ্যাস নির্ভর করে ভৌগােলিক পরিবেশের ওপর। বাংলাদেশের জলবায়ুতে ধান, ডাল, আম, কাঁঠাল প্রভৃতি ভালাে জন্মে এবং নদনদী, খালবিলে প্রচুর মাছ পাওয়া যায়। এজন্য বাঙালিদেরকে বলা হয়, “ভাতে মাছে বাঙালি”।

(৮) অপরাধ প্রবণতার ওপর প্রভাব : ফরাসি অপরাধবিজ্ঞানী লসাে (Lombroso) বলেন যে, ভৌগােলিক কারণে অপরাধ সংঘটিত হয়। উদাহরণস্বরূপ বলা যেতে পারে চরাঞ্চলের লােকের মারামারিতে বেশি লিপ্ত হতে দেখা যায়।

(৯) দক্ষতার ওপর প্রভাব : মানবদক্ষতাও ভৌগােলিক উপাদান দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। আবহাওয়া মানুষের কর্মক্ষমতাকে প্রভাবান্বিত করে।

উপরের আলােচনা হতে এটাই প্রতীয়মান হয় যে, মানব জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্ৰই ভৌগােলিক উপাদান দ্বারা প্রভাবিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button