বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান

বিসিএস পরীক্ষার জন্য আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী থেকে ৩৫টি প্রশ্ন

বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান কত সে বিষয়ে কিছু তথ্য নিজে আজকের লেখাটি হয়েছে। যেকোন চাকুরী বা ভর্তি পরীক্ষায় আজকের লেখাটি থেকে প্রশ্ন কমন পেতে পারেন।চলুন এক নজরে পড়ে নেওয়া যাক —

জনসংখ্যার দিক থেকে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান – ৮ ম ।

বর্তমান বিশ্বে বাংলা ভাষার অবস্থান –৮ ম ।

জিডিপির আকারের হিসাবে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান – ৪১ তম (এশিয়ায় ১৬ তম এবং দক্ষিণ এশিয়ায় দ্বিতীয়)।

বিশ্ব অর্থনীতি ও বাণিজ্যে রপ্তানিতে বাংলাদেশের অবস্থান –৪২ তম।

বিশ্ব অর্থনীতি ও বাণিজ্যে আমদানিতে বাংলাদেশের অবস্থান–৩০ তম।

এশীয় ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ৪৯ টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ–১৩ তম বৃহৎ অর্থনীতির দেশ।( চীন সর্ববৃহৎ অর্থনৈতিক দেশ )।

দ্রুত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির তালিকায় বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান –দ্বিতীয়।

দ্রুত রপ্তানি আয় বৃদ্ধিতে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান – দ্বিতীয়।

সবচেয়ে বেশি প্রবাসী আয় অর্জনকারী ১০ টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান – ১০ম।

জাতিসংঘে শান্তিরক্ষী প্রেরণে বর্তমানে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান – দ্বিতীয়।

শান্তিরক্ষী প্রেরণে বর্তমানে বিশ্বে শীর্ষ দেশ –ইথিওপিয়া ।

বিশ্বে আউটসোর্সিং সেবা প্রদানে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান –২য় ( শীর্ষ দেশ – ভারত )।

এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে আবাদি কৃষিজমির পরিমাণের দিক দিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান – প্রথম।

বিশ্বে তৈরি পোশাক রপ্তানিতে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয় (বিশ্বে প্রথম – চীন )।

ইউরোপে তৈরী পোশাক রপ্তানির দিক থেকে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান –২য়

পাট উৎপাদনে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান হয় ।

স্বাদু পানির মাছ উৎপাদনে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান –২ য় ।

চাষকৃত মাছ উৎপাদনে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান –৬ ষ্ঠ ।

কাঁঠাল উৎপাদনে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান –দ্বিতীয় ।

আম উৎপাদনে সারা বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান –৬ ষ্ঠ ।

সবজি চাষে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান তৃতীয়।

সবজি চাষে শীর্ষে–ভারত ।

বজ্রপাতে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা যায় – বাংলাদেশে ।

বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Scroll to top