প্রশ্ন ও উত্তর

বাংলাদেশের বর্তমান স্থলবন্দর কতটি?

বাংলাদেশের বর্তমান স্থলবন্দর কতটি?
ভুল ২৫টি সঠিক ২৪টি

আরো পড়ুন : UNESCO কবে থেকে নির্বস্তুক বা অধরা সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ঘােষণা করে?

স্থলবন্দর হলাে সীমান্তে অবস্থিত আন্তঃদেশীয় পণ্য ও যাত্রী পরিবহন এবং বিনিময় কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র। স্থলপথে প্রতিবেশী দেশগুলাের সাথে বাণিজ্য সম্প্রসারণের উদ্দেশ্যে আমদানি রপ্তানি কার্যক্রম সহজতর ও উন্নততর করার লক্ষ্যে ১৪ জুন।

২০০১ বাংলাদেশ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ আইন, ২০০১’-এর অধীন বাংলাদেশ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ (BSBK) প্রতিষ্ঠা করা হয়। এরপর ১২ জানুয়ারি ২০০২ সরকার সীমান্তবর্তী ১১টি স্থানকে স্থলবন্দর ঘােষণা করে, যার মধ্যে থেকে ১ ফেব্রুয়ারি।

এই বিভাগ থেকে আরো পড়ুন

২০০২ বেনাপােল প্রথম স্থলবন্দর হিসেবে আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করে। এটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের চব্বিশ পরগনার বনগাঁওয়ের পেট্রাপােল বন্দরের সাথে যুক্ত।

বর্তমানে BSBK ঘােষিত স্থলবন্দরের সংখ্যা ২৪টি। সর্বশেষ ২৪ জুলাই ২০১৯ সিলেট জেলার কোম্পানীগঞ্জ উপজেলাধীন ভােলাগঞ্জ স্থল ল্ক স্টেশনকে দেশের ২৪তম স্থলবন্দর হিসেবে ঘােষণা করা হয়।

মােট স্থলবন্দরের সংখ্যা ২৪টি
প্রথম স্থলবন্দর ঘোষণা ১২ জানুয়ারি ২০০২
প্রথম কার্যক্রম শুরু বেনাপােল (১ ফেব্রুয়ারি ২০০২)
বৃহত্তম স্থলবন্দর বেনাপােল; ৮৬.৬৮ একর
সর্বাধিক স্থলবন্দর সিলেট জেলায়; ৩টি— তামাবিল, শেওলা ও ভােলাগঞ্জ।
দুটি করে স্থলবন্দর ২টি জেলায় দিনাজপুর (হিলি ও বিরল) এবং চুয়াডাঙ্গা (দর্শনা ও দৌলতগঞ্জ)
মিয়ানমারের সাথে একমাত্র স্থলবন্দর টেকনাফ (কক্সবাজার)
চালু স্থলবন্দর ১২টি
ঘােষণার প্রক্রিয়াধীন স্থলবন্দর ০২টি (মুজিবনগর (মেহেরপুর) ও প্রাগপুর (দৌলতপুর, কুষ্টিয়া)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button