বাংলাদেশের কৃষ্টি ও সংস্কৃতি

  • সংস্কৃতি হলাে প্রত্যেক মানুষের ব্যক্তিগত আচরণের সমষ্টি।
  • বাংলাদেশের সর্বজনস্বীকৃত প্রাচীন সংস্কৃতির ধারা হলাে- বৈশাখী মেলা।
  • পহেলা বৈশাখের মঙ্গল শােভাযাত্রা ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি লাভ করে—৩০ নভেম্বর, ২০১৬।
  • বাংলাদেশের সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খান; তাঁর জন্মস্থান ব্রাহ্মণবাড়িয়া; ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে বলা হয় বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক রাজধানী।
  • মরমী কবি হাছন রাজা; বাউল সম্রাট লালন শাহ; লালন শাহের গানের বিষয়বস্তু দেহতত্ত্ব, লালনের আখড়া অবস্থিত- কুষ্টিয়া।
  • বাউল গানের বিশেষত্ব আধাত্মবিষয়ক। উপজাতিদের বর্ষবরণ উৎসবকে সামগ্রিকভাবে বলা হয়— বৈসাবি; রাখাইনদের উৎসবের নাম- জলকেলি।।
  • সাংস্কৃতিক সংগঠন ছায়ানটের প্রতিষ্ঠা—১৯৬১; উদীচী শিল্পী গােষ্ঠীর প্রতিষ্ঠা- ১৯৬৮।
  • ‘গম্ভীরা বাংলাদেশের যে অঞ্চলের গান— চাঁপাইনবাবগঞ্জ (রাজশাহী)।
  • ‘চটকা’ ও ‘ভাওয়াইয়া বাংলাদেশের রংপুর।
  • ভাটিয়ালী বাংলাদেশের ময়মনসিংহ।
  • ভাণ্ডারীচট্টগ্রাম অঞ্চলের গান।
  • ঢাকা, ময়মনসিংহ অঞ্চলের ঐতিহ্যবাহী নৃত্যের নাম— জারি।
  • ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানাে একুশে ফেব্রুয়ারি’ গানটির গীতিকার আবদুল গাফফার চৌধুরী; গানটির প্রথম সুরকার— আবদুল লতিফ, বর্তমান সুরকার আলতাফ মাহমুদ।
  • ‘মােরা একটি ফুলকে বাঁচাবাে বলে যুদ্ধ করি’ বিখ্যাত এ বাংলা গানটির রচয়িতা— গােবিন্দ হালদার।
  • বাংলাদেশের একমাত্র লােকশিল্প জাদুঘরটি নারায়ণগঞ্জের সােনারগাঁয়ে।
  • লােকশিল্প জাদুঘরের বর্তমান নাম— জয়নুল লােক ও কারুশিল্প জাদুঘর।
  • বাংলাদেশের জাতীয় জাদুঘর অবস্থিত— ঢাকার শাহবাগে। প্রতিষ্ঠিত—৭ আগস্ট, ১৯১৩ সালে।
  • মুক্তিযুদ্ধ যাদুঘর অবস্থিত ঢাকার আগারগাঁও (তবে প্রথমে প্রতিষ্ঠিত হয় সেগুনবাগিচায়)। প্রতিষ্ঠিত—২২ মার্চ, ১৯৯৬ সালে।
  • বাংলাদেশের জাতীয় গ্রন্থাগার অবস্থিত— আগারগাঁও।
  • বাংলাদেশের জাতীয় নাট্যশালা অবস্থিত- শিল্পকলা একাডেমিতে, আর শিল্পকলা একাডেমি অবস্থিত—ঢাকার সেগুনবাগিচায়।
  • বাংলাদেশের জাতিতাত্ত্বিক বা নৃ-তাত্ত্বিক জাদুঘর চট্টগ্রামের আগ্রাবাদে।
  • বাংলাদেশের সর্বপ্রথম জাদুঘর-বরেন্দ্র গবেষণা জাদুঘর রাজশাহী (১৯১০)।
  • বাংলায় পঞ্চাশের মন্বন্তর (দুর্ভিক্ষ) হয়েছিল ইংরেজি ১৯৪৩ সালে।
  • জয়নুল এর উপর আঁকেন বিখ্যাত চিত্রশিল্প ‘ম্যাডােনা ৪৩’।
  • প্রখ্যাত ‘তিন কন্যা’ ছবিটি এঁকেছেন—কামরুল হাসান; মনপুরা-৭০–একটি চিত্রশিল্পের নাম।
  • বাংলাদেশের যে সঙ্গীতজ্ঞ আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খ্যাতি অর্জন করেছিলেন ওস্তাদ আয়াত আলী খান; বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন পল্লীগীতির গায়ক—আব্বাস উদ্দিন ও আবদুল আলীম।
  • বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন নৃত্যশিল্পী বুলবুল চৌধুরী; বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চিত্রশিল্পী শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীন।
  • বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ কাঠ খােদাই শিল্পী— অলক রায়; শ্রেষ্ঠ কার্টুনিস্ট- রনবী (রফিকুন্নবী)।

About Bcs Preparation

BCS Preparation is a popular Bangla community blog site on education in Bangladesh. One of the objectives of BCS Preparation is to create a community among students of all levels in Bangladesh and to ensure the necessary information services for education and to solve various problems very easily.
View all posts by Bcs Preparation →

Leave a Reply

Your email address will not be published.