বাংলাদেশ বিষয়াবলী

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা আরেকদফা পেছানোর সম্ভাবনা

আগামী ৩১ জুলাই থেকে ১৪ আগস্ট পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। তবে পুর্বের এ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী করােনা পরিস্থিতির কারণে ভর্তি পরীক্ষা আরেকদফা পেছানাের চিন্তা ভাবনা করছে প্রশাসন। যদিও এ বিষয়ে পর্যন্ত চূড়ান্ত কোনাে সিদ্ধান্তে পৌছাতে পারেনি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তবে ১০ জুলাই থেকে ক, খ, গ, ঘ ও চ ইউনিটের প্রবেশপত্র ডাউনলােডের কার্যক্রমটিও স্থগিত করা হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা ওয়েবসাইটের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ভর্তি পরীক্ষার তারিখের বিষয়ে সিদ্ধান্ত শিগগিরই পরীক্ষার্থীদের অবহিত জানানাে হবে’। বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা গেছে, উদ্বেগজনক পরিস্থিতি ভর্তি পরীক্ষার তারিখ পেছাবে। তবে এ ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। শিগগির বিষয়টি নিয়ে বৈঠক হবে। এই সূত্রের দাবি, করােনা শুধু শিক্ষার্থী নয়, শিক্ষকদের জন্যও হুমকিস্বরূপ। অনেক বয়স্ক শিক্ষক রয়েছেন; যারা করােনা পরিস্থিতিতে পরীক্ষার হলে ডিউটি করতে চাইবেন না।

বিশ্ববিদ্যালয় তথা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় সিট প্ল্যানসহ পরীক্ষা আয়ােজনে অন্যান্য প্রস্তুতির বিষয়টিও বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। স্বভাবই ৩১ জুলাই পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হবে না। তবে বৈঠকের পরই চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানা যাবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-?উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ বলেন, বর্তমানে করােনার কারণে সারাদেশের মানুষ আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে। এই মুহুর্তে ভর্তি পরীক্ষা হওয়ার কোন কারণ দেখছি না।

তবে এ ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত হলে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জানিয়ে দেয়া হবে। প্রবেশপত্র ডাউনলােড কার্যক্রম স্থগিতের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের অনলাইন ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক মাে. মােস্তাফিজুর রহমান বলেন, দেশে সাম্প্রতিক সময়ে করােনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় আমরা ভর্তিচ্ছুদের প্রবেশপত্র ডাউনলােড কার্যক্রমটি আপতত স্থগিত রেখেছি। তিনি বলেন, সাধারণত প্রবেশপত্রে ভর্তি পরীক্ষার তারিখটি উল্লেখ করা থাকে।

যেহেতু ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েছে সেক্ষেত্রে আমরা আগামী ১০ তারিখে শিক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র দিতে পারি না। এটা করলে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিভ্রান্তি তৈরি হতে পারে। ঈদের আগেই ভর্তি প্রবেশপত্র ও ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে অবস্থান পরিষ্কার করা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, ভর্তিচ্ছুদের প্রবেশপত্র এবং ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে আমাদের ঈদের আগেই একটি জরুরি সভা হওয়ার কথা রয়েছে।

তবে সভার এখনাে তারিখ নির্ধারণ হয়নি। অধ্যাপক মােস্তাফিজ বলেন, করােনা পরিস্থিতি বিবেচনায় সভায় যদি ভর্তি পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত হয় তাহলে। আমরা সেটি জানাবাে। আর যদি পূর্বের তারিখে পরীক্ষা বহাল থাকলে তাহলে সেটিও জানানাে। যদি পূর্বের তারিখে পরীক্ষা বহাল থাকে; তাহলে পরীক্ষার আগেই শিক্ষার্থীদের হাতে প্রবেশপত্র পৌঁছে দেব।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পূর্বের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী ৩১ জুলাই থেকে ১৪ আগস্ট পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। ওই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ‘চ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৩১ জুলাই, ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৬ আগস্ট, ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৭ আগস্ট, ১৩ আগস্ট ‘গ’ ইউনিট ও ১৪ আগস্ট ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button