টুকরো সংবাদ

চশমা এলাে যেভাবে জেনে নিন

চশমার ইতিহাস অনেক প্রাচীন। প্রাচীন মিসরীয় সভ্যতার হায়ারােগ্লিফিকসে মানুষের চশমার ব্যবহার আবিষ্কার করেন ইতিহাসবিদেরা। সাধারণত কোনাে জিনিসকে পরিষ্কার দেখার জন্য সেই সময় বিভিন্ন ধরনের কাচের প্রচলন ছিল।

খ্রিষ্টপূর্ব প্রথম শতকে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধকতা দূর করার জন্য চোখে কাচের ব্যবহারের লিখিত প্রমাণ রয়েছে। রােমান সম্রাট নিরাের একজন শিক্ষক সে। সময়ে বিভিন্ন বিষয়ের বর্ণনার সঙ্গে দূরের জিনিস পরিষ্কারভাবে দেখার জন্য জলমিশ্রিত এক ধরনের কাচ চোখে লাগানাের কথা বলেছেন।

সত্যিকারের চশমা বলতে যা বােঝায়, ১২৮৬ সালের দিকে প্রথম ইতালিতে প্রচলন ঘটে। জিওর্দানাে দা পিসা নামের এক ব্যক্তি প্রথমবারের মতাে চশমা তৈরি করেন। ঐ সময় চোখে আতশী কাচ লাগিয়ে ছােট জিনিসকে দৃষ্টিসীমায় নিয়ে আসার জন্য চোখে চশমা ব্যবহার করা হতাে।

আধুনিক চশমার উদ্ভাবক হিসেবে অভিহিত করা যেতে পারে গিরােলামাে সাভােনারােলা নামের এক ইতালীয়কে। তিনি ১৭২৭ সালে বর্তমান সময়ের চশমার প্রাথমিক নকশাটি তৈরি করেন। ধীরে ধীরে এটি রূপ পায় আধুনিক চশমায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button