টীকা লিখন

কর্মসংস্থানে স্টার্টআপের ভূমিকা

স্টার্টআপ হচ্ছে নতুন কোনাে প্রতিষ্ঠান, যারা কাস্টমারদের জন্য ইউনিক কিছু প্রােডাক্ট বা সেবা নিয়ে আসার চেষ্টা করে, যেন কাস্টমার কিছুটা হলেও নতুন অভিজ্ঞতার সঙ্গে পরিচিত হন এবং লাভবান হন। স্টার্টআপের সঙ্গে উদ্ভাবনের অনেক সুন্দর মেলবন্ধন রয়েছে।

স্টার্টআপের একটি উদ্ভাবন পুরাে বিশ্বকে পরিবর্তন করে দিতে পারে। স্টার্টআপ খাতে বিশ্বের ১০০টি দেশের মধ্যে ৯৩তম অবস্থানে আছে বাংলাদেশ। উদ্ভাবনী শক্তির বিকাশে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেড, আইডিয়া প্রকল্প ও বঙ্গবন্ধু ইনােভেশন গ্র্যান্ট (বিগ)।

এই বিভাগ থেকে আরো পড়ুন

সরকারের এ ধরনের নানা উদ্যোগের ফলে ক্রমে দেশে স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম গড়ে উঠছে। বর্তমানে দেশে আড়াই হাজারের বেশি স্টার্টআপ রয়েছে। স্টার্টআপ খাতে এ পর্যন্ত প্রত্যক্ষ ও পরােক্ষ কর্মসংস্থান হয়েছে প্রায় ১৫ লাখ মানুষের।

স্টার্টআপ নিয়ে বাংলাদেশ সরকারের লক্ষ্য, ২০২৫ সালে আইসিটি রপ্তানি ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং তথ্য ও যােগাযােগপ্রযুক্তিনির্ভর কর্মসংস্থান ৩০ লাখে উন্নীত করা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button