ইসলাম ধর্ম

ইসলামিক সাধারণ জ্ঞান প্রশ্ন ও উত্তর

শান্তির ধর্ম ইসলাম । কিন্তু পাশ্চাত্য মিডিয়ার নানা রকম অপপ্রচারের কারণে বিশ্বজুড়ে ইসলাম সম্পর্কে নানা বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে। সেই কারণে ইসলামের নানা মৌলিক বিষয় নিয়ে প্রশ্নোত্তর আকারে আমাদের এই নতুন বিভাগ। এবারের বিষয় মানবজাতির মুক্তির দিশারি বিশ্ব নবী “মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম”।

ইসলামী সাধারণ জ্ঞান গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন : মহানবী (সা) কত খ্রিস্টাব্দে মাতৃভূমি ত্যাগ করে মদীনায় আশ্রয় গ্রহণ করেন?
উত্তর : ৬২২ খ্রিস্টাব্দে ২ জুলাই।

প্রশ্ন : কে মদীনার সর্বাধিনায়ক নিযুক্ত হন?
উত্তর : হযরত মুহাম্মদ (সা)।

প্রশ্ন : সারিয়ার সংখ্যা কয়টি?
উত্তর : তেতাল্লিশটি।

প্রশ্ন : আবু জেহেলের নেতৃত্বে কত সৈন্য মদীনা আক্রমণে বের হন?
উত্তর : নয়শ পদাতিক ও একশ এ অশ্বারােহী।

প্রশ্ন : বদর কোথায় অবস্থিত?
উত্তর : মদীনা থেকে প্রায় ৮০ মাইল দক্ষিণে।

প্রশ্ন : বদর যুদ্ধ সংঘটিত হয় কখন?
উত্তর : দ্বিতীয় হিজরীর ১৭ রমযান তথা ১৬ জানুয়ারি ৬২৪ সালে।

প্রশ্ন : বদর যুদ্ধে কুরাইশদের কতজন বন্দী ও নিহত হয়?
উত্তর : ৭০ জন বন্দি এবং ৭০ জন নিহত হয়।

এই বিভাগ থেকে আরো পড়ুন

প্রশ্ন : আবু জেহেল কোন যুদ্ধে নিহত হয়?
উত্তর : বদর যুদ্ধে।

প্রশ্ন : কোন যুদ্ধে মুসলমানদের বিশ্বজয়ের প্রতিধ্বনি সূচিত হয়েছিল?
উত্তর : বদর যুদ্ধে।

প্রশ্ন : উহুদ যুদ্ধে মুসলিম সৈন্যসংখ্যা কত ছিল?
উত্তর : প্রায় সাতশ।

আরো পড়ুন : সাম্প্রতিক সাধারণ জ্ঞান ২০২২ থেকে ৫০টি এমসিকিউ

প্রশ্ন : সভ্যতার ইতিহাসে ইসলামী জগতের প্রথম সংবিধান কী?
উত্তর : মদীনার সনদ।

প্রশ্ন : মহানবী (সা) যেসব অভিযানে উপস্থিত ছিলেন তার মধ্যে কয়টি ক্ষেত্রে যুদ্ধ হয়েছে বলে প্রমাণ পাওয়া যায়?
উত্তর : নয়টি।

প্রশ্ন : ছােট ছােট অভিযানকে কী বলা হয়?
উত্তর : সারিয়াহ।

প্রশ্ন : খন্দকের যুদ্ধকে আহযাবের যুদ্ধ বলা হয় কেন?
উত্তর ; শত্রুদের বিরাট সম্মিলিত বাহিনী মুসলমানদের বিরুদ্ধে অভিযান করেছিল বলে।

প্রশ্ন : উহুদ যুদ্ধে শত্রু তীর বিদ্ধ হয়ে কোন বীর শাহাদাতবরণ করেন?
উত্তর : মহাবীর হামযা।

প্রশ্ন : উহুদ যুদ্ধে হযরত হামযাসহ কতজন শহীদ হয়েছিলেন?
উত্তর : সত্তর জন।

প্রশ্ন : মুতা অভিযান কার নেতৃত্বে পরিচালিত হয়েছিল?
উত্তর : যায়েদ বিন হারেসের ।

প্রশ্ন : মুতা অভিযানে মুজাহিদ সংখ্যা কত ছিল?
উত্তর : তিন হাজার।

প্রশ্ন : মুতা যুদ্ধে কোন তিনজন সেনাপতি একের পর এক শহীদ হলেন?
উত্তর : যায়েদ বিন হারেসা, জাফর বিন আবু তালিব ও আব্দুল্লাহ বিন রাওয়াহা।

প্রশ্ন : মুতা যুদ্ধে খালিদ বিন ওয়ালীদের হাতে কতখান তরবারি ভেঙেছিল?
উত্তর : আটখানা।

প্রশ্ন : খন্দকের যুদ্ধের সময় কুরাইশরা কতদিন অবস্থান নিয়েছিল?
উত্তর : ২১ দিন।

প্রশ্ন : হযরত উমার (রা) বদর যুদ্ধে বন্দিদের কি শাস্তি দেয়ার প্রস্তাব করেছিলেন?
উত্তর : মৃত্যুদণ্ড।

প্রশ্ন : ইতিহাসে কারা মুহাজিরীন নামে খ্যাত?
উত্তর : মক্কার বাস্তুত্যাগী মুসলমানগণ।

আরো পড়ুন : ‘হাঙর নদী গ্রেনেড’ একটি মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক উপন্যাস

প্রশ্ন : বর্বর কুরাইশ নারীরা কীভাবে উহুদ যুদ্ধে বীভৎসতার পরিচয় দিল?
উত্তর : মুসলিম শহীদদের নাসিকা ও কর্ণ ছেদন করে তার দ্বারা মালা গেঁথে।

প্রশ্ন : মহানবী (সা) কখন খায়বার অভিযানে রওয়ানা হন?
উত্তর : ৬২৮ খ্রিঃ মার্চ মাসে।

প্রশ্ন : কোন যুদ্ধে মুজাহিদদের সাহায্যার্থে কয়েকজন রমণী যােগদান করেছিলেন?
উত্তর : খায়বার যুদ্ধে।

প্রশ্ন : মুতা অভিযান কখন সংঘটিত হয়?
উত্তর : ৬২৯ খ্রিঃ মােতাবেক ৮ হিজরী।

প্রশ্ন : মুতা অভিযানে প্রথম সেনাপতি কে ছিলেন?
উত্তর : যায়েদ বিন হারেসা ।

প্রশ্ন : ঐতিহাসিকদের মতে কোন সময় সব চাইতে বেশি সংখ্যক লােক ইসলাম গ্রহণ করেন?
উত্তর : হুদায়বিয়ার সন্ধির পর থেকে মক্কা বিজয় পর্যন্ত।

প্রশ্ন : মক্কা অভিযানে মহানবী (সা)-এর সৈন্যসংখা কত ছিল?
উত্তর : প্রায় দশ হাজার।

প্রশ্ন : মহানবীর মক্কা অভিযান কখন পরিচালিত হয়?
উত্তর : ৮ম হিজরী ১০ রমযান, মােতাবে ১ জানুয়ারি ৬৩০ খ্রিস্টাব্দ।

প্রশ্ন : হুনাইনের যুদ্ধে শত্রুপক্ষের কতটি মেষ মুসলমানদের হস্তগত হয়?
উত্তর : চল্লিশ হাজার।

প্রশ্ন : তাবুক অভিযান কখন সংঘটিত হয়েছিল?
উত্তর : ৬৩০ খ্রি. নবম হিজরীতে।

প্রশ্ন : মহানবী (সা)-এর সকল কাজ কীসের মাধ্যমে সম্পাদিত হয়েছিল?
উত্তর : ওহীর মাধ্যমে।

প্রশ্ন : হুজ্জাতুল বিদা কী?
উত্তর : মহানবীর জীবনের শেষ হজ্জ।

প্রশ্ন : মহানবী (সা)-এর শিক্ষক কে ছিলেন?
উত্তর : স্বয়ং আল্লাহ।।

প্রশ্ন : খাতামুন নাবিয়্যন কে?
উত্তর : হযরত মুহাম্মদ (সা)।

আরো পড়ুন : মে মাসের জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দিবসসমূহ

প্রশ্ন : হুদায়বিয়ার সন্ধির সময় রাসূল (সা)-এর সঙ্গে কতজন সাহাবী ছিলেন?
উত্তর : চৌদ্দশত ।

প্রশ্ন : হুদায়বিয়া কীসের নাম?
উত্তর : একটি কূপের নাম।

প্রশ্ন : মুতা অভিযানের পর রােমানগণ, কী পরিকল্পনা করেছিল?
উত্তর : মদীনা আক্রমণের ।

প্রশ্ন : মহানবী (সা) ইহধাম ত্যাগ করেন কত বছর বয়সে?
উত্তর : ৬৩ বছর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button