আলস্য এক ভয়ানক ব্যাধি

অলসতায় যাকে পেয়ে বসেছে, সে কখনাে সৃষ্টিশীল কিছু করতে পারে না। তার জীবন রােগগ্রস্ত, অকর্মণ্য, স্থবির এবং সমাজে সে ঘৃণিত। সমাজে যে অকর্মক, সে কাজ না করতে করতে ভীষণ অলস হয়ে পড়েছে। অভ্যাসগতভাবে সে মারাত্মক রােগগ্রস্ত প্রায়। এমন অলসতা সাধারণত সমাজের জন্য, দেশ ও জাতির জন্য মারাত্মক ক্ষতিও বয়ে আনে। অলসতা আমাদের সমাজ ও দেশের জন্য মারাত্মক এক রােগ। যাকে অলসতায় পেয়ে বসেছে সে কখনাে মননশীল কিছু করতে পারে না। মানুষের কাছে সে সর্বদা ঘৃণিত ও ধিকৃত। জীবন সম্পর্কে আলসে মানুষের কোনাে হিতাহিত জ্ঞান থাকে না। তারা কেবলই ধ্বংসের পথে পা বাড়ায়। অবশেষে ভ্রষ্টতায় নিমজ্জিত হয়ে মনুষ্যত্ববোেধ হারিয়ে ফেলে। কোনাে কূল না পেয়ে জীবন সাঙ্গ হয়। এমন আলস্য রােগ সমাজ বিকাশের ক্ষেত্রে অন্তরায়স্বরূপ। এতে অবনতি ছাড়া কোনাে কিছু পাওয়া যায় না। যারা আলস্যকে জীবনে পুষে রাখে, তারা সারা জীবন তুষের আগুনের মতাে জ্বলতে থাকে। কোনাে দিক-নির্দেশনা তাদের জীবনে আসে না। লক্ষ্যহীন জীবনে পরিণত হয়। বিশেষ করে একজনের অলসতার কারণে আরাে অনেকে এ রােগে সংক্রমিত হতে পারে। তাই আমাদের জাতীয় জীবনে এ রােগ মারাত্মক ক্ষতি করে। যা সামাজিক, অর্থনৈতিক, শিক্ষা, সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় সকল দিক দিয়ে প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। এ রােগ থেকে সংযত হওয়া দরকার। অলসতা মানুষের জীবনে শান্তি আনতে পারে না। সারাজীবন শুধু অশান্তির বীজ বপন করে। আলস্য এক অভিশপ্ত রােগ।

এই বিভাগের আরো ভাবসম্প্রসারণ :

আরো পড়ুন :   দুর্জন বিদ্বান হলেও পরিত্যাজ্য