আপনি আচরি ধর্ম পরের বােঝাও

বিসিএস প্রস্তুতিতে গণিতে দুর্বল পরীক্ষার্থীরা যেভাবে ভালো করবেন জানুন।

আপনি আচরি ধর্ম পরের বােঝাও

নিজের মধ্যে লালন না করা আচার-ব্যবহার, বিশ্বাস, বৈশিষ্ট্য বা ধর্ম অন্যকে দিতে গেলেই বাঁধে বিড়ম্বনা। আর তাই নিজের আচরিত বিষয়ই কেবল অন্যকে প্রদান করা উচিত। এর ব্যতিক্রম হলে। হিতে বিপরীত হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে। ধর্ম মানুষকে সৎ ও কল্যাণের পথ দেখায়, মানুষকে মহৎ ও ভালাে হতে শেখায়। কিন্তু অধার্মিক ব্যক্তি যদি ধর্মের বুলি আওড়ায় তবে তা বেসুরাে বাজে। সবার কাছেই তা চরম বিরক্তিকর বলে মনে হয়। তাই প্রথমে নিজে ধর্মের দীক্ষা নিয়ে বাস্তব জীবনে প্রয়ােগ করে পরে তা অন্যকে পালন করতে বলা উচিত। নিজের মধ্যে যে গুণের অভিব্যক্তি নেই তা অন্যকে শিক্ষা দিতে বা বােঝাতে গেলে বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়। যেমন একজন চোর যদি এসে মানুষকে চুরি করতে নিষেধ করে, তবে সবার কাছেই। তা হাস্যকর বলে মনে হবে। কেউ তার কথা শুনবে না। তদ্রপ কোনাে ভণ্ড, প্রতারক, অসাধু ব্যক্তি মুখে যত ভালাে কথাই বলুক না কেন, কেউ তা থেকে শিক্ষাগ্রহণ করবে না। যে কোনাে বিষয় সম্পর্কে মানুষকে শিক্ষা দিতে গেলে, উপদেশ দিতে গেলে বা বােঝাতে গেলে আগে দেখতে হবে তা নিজের মধ্যে কতটুকু আছে। আগে নিজের আচরণে তার প্রতিফলন ঘটাতে হবে এবং পরে তা অন্যদের বােঝাতে হবে। অন্যথায় তা মােটেও কার্যকর হবে না। নিজের মধ্যে যা নেই অন্যকে তা বােঝাতে বা শিক্ষা দিতে যাওয়া চরম বােকামি।

এই বিভাগের আরো ভাবসম্প্রসারণ :

আপনি আচরি ধর্ম পরের বােঝাও
Scroll to top